আপডেট : ২৩ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৬:৩৩

নিউইয়র্কের রাস্তায় হস্তমৈথুন বুথ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
নিউইয়র্কের রাস্তায় হস্তমৈথুন বুথ!

রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন। লম্বা চৌকো একটা বাক্স। চারিদিক দিয়ে ঘেরা। আপনার কোনো বন্ধু অথবা পথচারী কাউকে হঠাৎ সেখানে ঢুকতে দেখে আপনি হয়তো ভাববেন, নিশ্চয়ই কোনো দরকারে বুথে ঢুকছেন ওই ব্যাক্তি, তা হতে পারে ফোন!

আপনার ভাবনাটা একেবারেই ঠিক না, আপনি ভুল ভাবছেন। কারণ, রাস্তায় তৈরি ওই বুথ আসলে নির্মিত হয়েছে হস্তমৈথুনের জন্য!

কেউ কি হস্তমৈথুন বুথের কথা শুনেছেন? আশ্চর্য হলেও ঘটনা সত্য। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরে রাস্তার মোড়ে মোড়ে হস্তমৈথুনের জন্য বুথ তৈরি করা হয়েছে। তবে এই সুবিধা কেবল পুরুষদের জন্যই। খবর ডেইলি নিউজের।

নটা-পাঁচটা ডিউটি করতে করতে ক্লান্ত। কাজের চাপে মাথা তুলতে পারেন না অফিসে। কাজ করেও মন পান না বস’দের। শরীরে ধকল, মনে অশান্তি নিয়ে আর যেন পেরে উঠছেন না। এমন কর্মীদের মুশকিল আহসানে তাই রাস্তায় হাজির হস্তমৈথুন বুথ।

আমেরিকার সেক্স টয় নামের একটি কোম্পানি এই বুথগুলো তৈরি করেছে। অফিসের বাইরে  উপযুক্ত ও আরামদায়ক পরিবেশে যাতে হস্তমৈথুন করা যায় সে উদ্দেশ্যেই এসব বুথ তৈরি করা হয়েছে। তাছাড়া বুথগুলোতে ল্যাপটপ ও হাইস্পিড ইন্টারনেট কানেকশন রয়েছে। আছে আরামদায়ক চেয়ারও।

পরিসংখ্যান বলছে, নিউ ইয়র্কের ৩৯ শতাংশ মানুষ নিজেদের কর্মস্থানেই হস্তমৈথুন সারেন। অতিরিক্ত মানসিক চাপ, কাজের চাপে নিউইয়র্কের মানুষ প্রশান্তির জন্য হস্তমৈথুন করেন। তাই কর্মস্থান থেকে হ্যাংওভার কাটাতে রাস্তায় রাস্তায় হস্তমৈথুন বুথ তৈরি করা হয়েছে। রাস্তায় চলতে ফিরতে প্রস্রাব করার মতই নিউইয়র্কের মানুষ হস্তমৈথুনও করতে পারবে।

নিউ ইয়র্কে রাস্তার ফুটপাতে ইতিমধ্যেই এই ধরনের কয়েকটি বুথ খোলা হয়েছে। অনেকটা ওয়াইফাই বা লাইফাইয়ের আদলে হস্তমৈথুন বুথের নাম দেওয়া হয়েছে গাইফাই (GuyFi) বুথ। এমন উদ্যোগ কর্মক্ষেত্রে হস্তমৈথুন প্রবণতা কমাবে বলে আশা উদ্যোক্তাদের।

তবে শৌচালয় ব্যবহারের মতো হস্তমৈথুন বুথ ব্যবহারে কোনও খরচ অবশ্য লাগছে না। তবে উদ্যোক্তারা একটা আশা অবশ্য করেছেন। হস্তমৈথুন বুথ ব্যবহারের পর অফিসে কাজের গতিবৃদ্ধি হয়ে প্রোমোশনের পথ প্রশস্ত হলে, ব্যবহারকারীরা স্রেফ একটা ধন্যবাদ যেন জানান তাদের।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে