আপডেট : ১৮ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৬:২৩

কেজরিওয়ালের মুখে কালি ছিটালো এক তরুণী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
কেজরিওয়ালের মুখে কালি ছিটালো এক তরুণী

জোড়-বিজোড় সাফল্য নিয়ে দিল্লিবাসীকে অভিনন্দন জানাতে উঠে মুখে কালি মাখলেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। রোববার মঞ্চে বক্তব্য রাখার সময় সরাসরি তার মুখে কালি ছিটিয়ে দিলেন এক তরুণী।

তরুণীর অভিযোগ, সিএনজি দুর্নীতিতে যুক্ত রয়েছেন রাজধানীর মুখ্যমন্ত্রী। ঘটনার আকস্মিকতায় সাময়িকভাবে হতচকিত হয়ে গেলেও মঞ্চ থেকেই তরুণীকে ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন কেজরিওয়াল। অনুষ্ঠান কর্তৃপক্ষকে আবেদন করেন, মহিলার অনুযোগ মন দিয়ে শুনতে। এমনকি তরুণীর হাতে থাকা দুর্নীতির তথ্যপ্রমাণের কাগজপত্রও গ্রহণ করার নির্দেশ দেন পাশে দাঁড়ানো সরকারি কর্মকর্তাদের।

দূষণ নিয়ন্ত্রণে গত পনেরো দিনে জোড়-বিজোড় নম্বর প্লেটের গাড়ি চালানোর পরীক্ষামূলক অভিযান সফল হওয়ার জন্য রোববার ছত্রাসল স্টেডিয়ামে নাগরিকদের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে দিল্লি সরকার।

মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল বক্তব্য শুরু করার পরই বছর কুড়ির এই তরুণী মঞ্চের কাছে গিয়ে কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে চিৎকার করতে শুরু করেন। হাতে কয়েক গোছা কাগজ নিয়ে তিনি বলেন, ‘সিএনজির দুর্নীতিতে যুক্ত কেজরিওয়াল। আমার কাছে এর যথেষ্ট তথ্যপ্রমাণ আছে।’

নিরাপত্তারক্ষীরা তাকে সরানোর আগেই মুখ্যমন্ত্রীর দিকে কালি ছুড়ে দেন তিনি। কেজরিওয়ালের পাশে দাঁড়ানো দুই নিরাপত্তারক্ষীর গায়ে, মুখেই লাগে বেশিরভাগ কালি। কয়েক ফোঁটা যায় কেজরিওয়ালের মুখের ভিতরেও। ঘটনার জেরে প্রায় মিনিট সাতেকের জন্য বন্ধ হয়ে যায় অনুষ্ঠান।

পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তির মধ্যেই তরুণী দাবি করেন, তিনি পাঞ্জাবের আম আদমি সেনার সদস্য। তার নাম ভাবনা। স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী তাকে ছেড়ে দেওয়ার আবেদন করলেও নিরাপত্তার প্রোটোকল মেনেই তাকে আটক করা হয়। মডেল টাউন থানায় তাকে জেরা করে পুলিশ। পরে ব্যক্তিগত বন্ডে তাকে জামিন দেওয়া হয়। কেজরি পরে বলেন, ‘যখনই ভাল কোনও কাজ হয়, এরকম বাধা আসেই।’

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/পিএম

উপরে