আপডেট : ১৭ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৭:৪৯

হাতির বিমান ভ্রমণ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
হাতির বিমান ভ্রমণ!

বিমানে চড়ে হাতি যাচ্ছে আফ্রিকা থেকে সুদূর চিনে। আশ্চর্য শোনালেও এমনটাই ঘটেছে জিম্বাবুয়েতে। চিনের সঙ্গে এক চুক্তির আওতায় হাতিদের এই বিমান ভ্রমনের ব্যবস্থা করেছে দেশটির প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবে।

মুগাবের এই উদ্দ্যোগকে অনেক প্রাণীপ্রেমি নিষ্ঠুর হিসেবে অভিহিত করেছেন। নিষ্ঠুর না হলে বাচ্চা বয়সী জংলি হাতি বিক্রি করে অর্থ উপার্জনের ধান্দা কি করে করেন তিনি?

কিন্তু সব বিতর্ক ছাপিয়ে বাস্তবতা হলো, বাচ্চা হাতি বিক্রি করছে জিম্বাবুয়ে। আর বিনিময়ে প্রতিটি হাতির জন্য পাচ্ছে ২৫ হাজার পাউন্ড। সেই হাতি নিয়ে বিশ্বের বৃহত্তম চিড়িয়াখানা ‘চিমলুং’ সাজাচ্ছে চীন।

জিম্বাবুয়ে সরকারের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী, গত বছরের জুলাইতে কার্গো বিমানে করে বেশ কয়েকটি হাতিকে নেওয়া হয়েছে চীনের গুয়াংদং প্রদেশের ‘চিমলুং’ চিড়িয়াখানায়। বিমানে আরো নয়টি চালানে নেওয়া হবে ২০০ হাতি, বাঘ, চিতা, জিরাফসহ কিছু বন্য প্রাণীকে। বিনিময়ে জিম্বাবুয়েকে ৫০ লাখ পাউন্ড দেবে চীন।

এদিকে, জিম্বাবুয়ে থেকে বন্য প্রাণী নিয়ে চীন পার্ক ভরলেও এতে মনঃক্ষুণ্ণ প্রাণীপ্রেমীরা।

চীনের প্রাণীপ্রেমীদের একটি সংগঠনের দাবি, বাচ্চা হাতিগুলোকে রাখা হয়েছে পাকা কিছু ঘরে। এগুলোকে মাত্র দুই ঘণ্টার জন্য বাইরে বের হতে দেওয়া হয়।

৩০০ কোটি পাউন্ড ব্যয়ে ‘চিমলুং’ চিড়িয়াখানাটি নির্মাণ করছে চীন চলতি বছরেই এটির উদ্বোধন হবে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে