আপডেট : ১১ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৪:১৪

ব্রিটেনে মাদরাসা ও ধর্ম শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নজরদারি

বিডিটাইমস ডেস্ক
ব্রিটেনে মাদরাসা ও ধর্ম শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নজরদারি

কিছু মাদ্রাসায় শিশুদের কট্টরপন্থী আদর্শে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে বলে মনে করে ব্রিটেন । আর সেজন্য সেখানকার সব মাদরাসা ও ধর্ম শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে বাধ্যতামূলক নিবন্ধনের আওতায় আনার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। একইসঙ্গে এসব প্রতিষ্ঠানকে নিয়মিত পরিদর্শনের আওতায়ও আনা হচ্ছে।
ব্রিটিশ মুসলিমদের মধ্যে কট্টরপন্থী বিশ্বাসের বিস্তার ঠেকাতে দেশটির সরকার সেখানকার সকল মাদ্রাসা এবং ধর্ম শিক্ষার প্রতিষ্ঠানকে বাধ্যতামূলক নিবন্ধন করার উদ্যোগ নিয়েছে। একইসঙ্গে এসব প্রতিষ্ঠানকে নিয়মিত পরিদর্শনের আওতায় আনা হবে। এ নিয়ে সারা দেশে মুসলিম সম্প্রদায়ের সঙ্গে মত বিনিময়ের এক প্রক্রিয়া আজ সোমবার শেষ হচ্ছে।

মাদ্রাসা এবং কোরআন শিক্ষার ওপর নজরদারির এই উদ্যোগ নিয়ে ব্রিটেনে মুসলিম সম্প্রদায় বিভক্ত হয়ে পড়েছে। সরকার ধর্মে নাক গলাচ্ছে বলে অনেকে মনে করছেন।

এ উদ্যোগের বিরোধীদের আশংকা, সরকার যেভাবে চাইবে, একসময় হয়তো সেভাবেই শিশুদের ইসলাম শিক্ষা দিতে হবে।

ব্রিটেনের প্রায় প্রতিটি মসজিদের সঙ্গে কোরআন ও ধর্ম শিক্ষার ব্যবস্থা রয়েছে। স্কুলের পরে এবং ছুটির দিনগুলোতে শিশু কিশোররা ইসলাম শিক্ষার জন্য যায়।

ব্রিটিশ সরকার মনে করছে কোনো নিয়ন্ত্রণ না থাকায় এরকম কিছু প্রতিষ্ঠান থেকে শিশুদের কট্টরপন্থী আদর্শে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে বা সেরকম ঝুঁকি রয়ে গেছে।

 

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে