আপডেট : ১০ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৪:৫৫

আত্মহত্যার নাটক সাজিয়েছিলেন হিটলার!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আত্মহত্যার নাটক সাজিয়েছিলেন হিটলার!

নাৎসি মহানায়ক এডলফ হিটলারের মৃত্যু সম্পর্কে সর্বাধিক প্রচলিত ধারণাটি হলো, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শেষদিকে মিত্রবাহিনীর আক্রমণে যখন বিধ্বস্ত জার্মান নেতৃত্বাধীন অক্ষশক্তি, তখন এক বাংকারে সস্ত্রীক আশ্রয় নিয়েছিলেন হিটলার।

পরাজয়ের গ্লানি সহ্য করতে না পেরে সেই ব্যাঙ্কারেই নিজের মাথায় গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেছিলেন হিটলার। সায়ানাইড খেয়ে আত্মঘাতী হন তাঁর স্ত্রীও।

তবে প্রচলিত এই ধারণাকে ভুল বলে দাবি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএর সাবেক এক কর্মকর্তা। তাঁর দাবি, হিটলার আত্মহত্যা করেননি। নিজের মৃত্যুর নাটক সাজিয়ে তিনি আর্জেন্টিনায় পালিয়ে গিয়েছিলেন। 

দীর্ঘ ২১ বছর সিআইয়ের হয়ে কাজ করা বব বেয়ার দাবি করেছেন, জার্মানির রাজধানী বার্লিনের বাংকারে হিটলারের মৃত্যুর বিষয়টি ধোপে টেকে না। নতুন প্রাপ্ত নথিতে দেখা যায়, নিজের মাথায় গুলি করে হিটলারের আত্মহত্যার বিষয়টি নিয়ে ওই সময়ের তদন্ত কর্মকর্তারাও সন্দেহ প্রকাশ করে ছিলেন। 

কিছু নতুন নথির ভিত্তিতে বব বেয়ার দাবি করেছেন, যৌথ বাহিনীর হাত থেকে বাঁচতে হিটলার আত্মহত্যার একটি নাটক সাজিয়েছিলেন। জার্মানি থেকে পালিয়ে হিটলার চলে যান স্পেনের ক্যানারি আইল্যান্ডসে। পরে সেখান থেকে তিনি গোপনে পাড়ি জমান আর্জেন্টিনায়। 

যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় তদন্ত ব্যুরো এফবিআইয়ের গোপন নথির তথ্য অনুযায়ী, হিটলার হয়তো বিমানযোগে জার্মানি থেকে স্পেনের ক্যানারি আইল্যান্ডসের টেনেরিফ দ্বীপে চলে গিয়েছেন। অপর কিছু নথি অনুযায়ী, একটি সাবমেরিনে করে হিটলারকে টেনেরিফ দ্বীপ থেকে অর্জেন্টিনায় পৌঁছে দেওয়া হয়েছিল। নাৎসি সমর্থক আছে আর্জেন্টিনার এমন অঞ্চলে ঠাই হয় হিটলারের।

১৯৪৫ সালে কথিত সেই বাংকারে যে দুই জনের মৃতদেহ পাওয়া গিয়েছিল তারা হিটলার বা ইভা নন।

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই কোন দিনই হিটলারের মৃত্যুর কথা বিশ্বাস করেনি এবং সারা বিশ্বে তাকে খুঁজে বেড়িয়েছে।

তিনি বলেন, আসলে হিটলারের ব্যক্তিগত সচিব মার্টিন বোরম্যানের নিখুঁত পরিকল্পনায় সবকিছু হয়েছিল। জার্মানি ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছিলেন হিটলার।

 

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে