আপডেট : ৯ জানুয়ারী, ২০১৬ ১১:২৯

ডেপুটি স্পিকারের কটু মন্তব্যের শিকার টিউলিপ

অনলাইন ডেস্ক
ডেপুটি স্পিকারের কটু মন্তব্যের শিকার টিউলিপ
ফাইল ছবি

ব্রিটেনের লেবার পার্টির এমপি এবং বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বোনের মেয়ে টিউলিপ সিদ্দিকিকে কটাক্ষ করে বিতর্কে জড়ালেন ব্রিটেনের হাউস অফ কমন্‌স’এর ডেপুটি স্পিকার ইলিনর লেইং। ডেপুটি স্পিকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা টিউলিপকে তাঁর গর্ভাবস্থা প্রসঙ্গে ‘কটু মন্তব্য’ করেছেন।

ঘটনার সূত্রপাত গত বুধবার। পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ ‘হাউস অফ কমন্‌স’এ নিজের বক্তৃতার পরেই ডেপুটি স্পিকারের কাছে কিছুক্ষণের বিরতি চেয়ে কক্ষের বাইরে গিয়েছিলেন টিউলিপ। খাওয়াদাওয়া সেরে প্রায় ৪৫ মিনিট পরে তিনি ফিরে আসেন এবং ইলিনরের কাছে ক্ষমা চান। টিউলিপ জানান, অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় তিনি একটানা বেশিক্ষণ বসে থাকতে পারেন না। ইলিনর বলেন, ‘‘অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার অজুহাত আমাকে দেবেন না।’’ টিউলিপ ফের ক্ষমা চাইলেও মন গলেনি ইলিনরের।

গত বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় পার্লামেন্টে পৌঁছান হ্যাম্পস্টেড-কিলবার্নের এমপি টিউলিপ। দুপুর আড়াইটায় তিনি বক্তৃতা করেন এবং পৌনে ৩টা নাগাদ কক্ষ থেকে বেরিয়ে যান। এর পরেই ইলিনর জানান, কোনও এমপি নিজের বক্তৃতার শেষে কক্ষ ছেড়ে বেরিয়ে যেতে পারেন না। নিয়মমতো তাঁকে পরবর্তী এক বা দু’জনের বক্তৃতা অবশ্যই শুনতে হবে।

টিউলিপ ফিরে আসার পরে ইলিনর তাঁকে বলেন, ‘‘সাধারণ মানুষ ভাববেন, অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় একজন মহিলা হাউসের কাজকর্ম ঠিকভাবে করতে পারেন না। এটা ঠিক নয়।’’ ডেপুটি স্পিকারের কথায়, ‘‘টিউলিপ মহিলাদের অপমান করেছেন।’’ প্রসঙ্গত, ২০০১ সালে নিজের সন্তান জন্মের এক সপ্তাহের মধ্যেই কাজে যোগ দিয়েছিলেন ইলিনর।

পুরো ঘটনায় মর্মাহত টিউলিপ। তিনি বলেন, ‘‘অন্তঃসত্ত্বাদের নিজেদের মতো থাকতে দেওয়া উচিত।’’ সেদিন পার্লামেন্ট কক্ষে হাজির অনেকেই টিউলিপকে সমর্থন করেছেন। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় টিউলিপও সমালোচনার মুখে পড়েছেন। এক মহিলা টুইটারে লিখেছেন, ‘ইলিনর যা করেছেন, তা ঠিক। টিউলিপ, নিজের কাজ করুন। প্রয়োজনে ব্যাগে খাবার রাখুন। আপনি একজন এমপি। সে কথা ভুলে যাবেন না’।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডজেড

উপরে