আপডেট : ২৯ নভেম্বর, ২০১৫ ১২:০৩

স্যান্ডউইচের লোভে শরীর বিকোচ্ছে গ্রীস তরুনী

অনলাইন ডেস্ক
স্যান্ডউইচের লোভে শরীর বিকোচ্ছে গ্রীস তরুনী
ফাইল ফটো

একটা স্যান্ডউইচের দাম আর কত, তরুণীর শরীরের চেয়ে বেশী?

অবস্থা এমন যে, মাত্র একটা চিজ কিংবা স্যান্ডউইচের চেয়ে কম দামে গ্রীসের তরুণীরা বিকোচ্ছে তাদের শরীর। দেনার দায়ে ডুবছে। ভেঙে পড়েছে গ্রীসের অর্থনীতি। ক্রমশই বাড়ছে বেকারত্ব।

স্যান্ডউইচের দামের চেয়েও কম দামে একটি মেয়ের শরীরের। দেশে অর্থনৈতিক মন্দা, চাকরী নেই, একটা চিজ বা স্যান্ডউইচের জন্য বাধ্য হয়ে সহসাই নিজেদের বিকিয়ে দিচ্ছেন সামান্য খাবার কেনার জন্য।

নতুন এক সমিক্ষায় বলা হয়েছে ১৭ হাজার গ্রীস তরুণী অর্থনৈতিক অক্ষমতার কারনে যৌন পেশায় যুক্ত হয়েছেন। সমগ্র ইউরোপে মধ্যে যৌনতার মূল্য সবচেয়ে সস্তা।

দুবছর আগেও গ্রীসে যৌনকর্মীদের গড় মূল্য ছিলো ৫০ ইউরো। কিন্তু অর্থনৈতিক মন্দার কারণে খদ্দের ধরতে তাঁরা নিজেদের বিকিয়ে দিচ্ছে সস্তায়। সে দেশের তরুণীরা মাত্র দুই ইউরোর বিনিময়ে নিজের শরীর বিকোতে রাজি হয়ে যাচ্ছে।

গ্রীসে মোট যৌন কর্মীর সংখ্যা ১৮,৫০০ জন। ভেঙ্গে পড়া অর্থনীতির জন্য তাদের যৌনতার দাম ক্রমশ কমছে।

গ্রীসে যৌনব্যবসা সরকার অনুমোদিত, পূর্ব ইউরোপের বহু তরুণী দেহ ব্যবসার জন্য গ্রীসে জড়ো হন। ফলে এই পেশা হয়ে উঠেছে একটি বড় শিল্প। আজ এই শিল্প ভয়ংকর সংকটের মুখে। এই পেশায় যুক্ত তরুণীরা আজ চরম দুর্ভোগে। গত তিন বছরে আর্থিক পরিস্থিতির এতোটাই অবনতি হয়েছে যে গ্রীসের নাগরিকরা অনেক বেশী সংখ্যায় এই পেশায় জড়িয়ে পড়ছেন।

বিডিনিউজ৩৬৫ডটকম/এসএম/জেডএম

 

উপরে