আপডেট : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৩:৩২

বিক্রি হবে মাইকেল জ্যাকসনের ‘নেভারল্যান্ড র‌্যাঞ্চ’

বিডিটাইমস ডেস্ক
বিক্রি হবে মাইকেল জ্যাকসনের ‘নেভারল্যান্ড র‌্যাঞ্চ’

নিজের কেনা জায়গাটিকে একটা ছোট্ট পার্ক হিসেবে গড়ে তুলতে চেয়েছিলেন তিনি। নাম দিয়েছিলেন পিটার প্যান গল্পের একটি দ্বীপের নামানুসারে। যে দ্বীপে বাচ্চারা কখনো বড় হয়না।

২,৭০০ একর এলাকা জুড়ে তৈরি বাড়িটিতে এখন না আছে মজার মজার সব পার্ক রাইড আর না আছে বিদেশি কোনো পশুপাখি। কিন্তু সেই পুরোনো ফুলেল ঘড়ি এবং ট্রেন স্টেশনটি এখনো তার জায়গাতেই আছে। এসবই ছিলো পপসম্রাট মাইকেল জ্যাকসনের পরিকল্পনা।

মাইকেল জ্যাকসনের বহুল আলোচিত সেই বাড়ি ‘নেভারল্যান্ড র‌্যাঞ্চ’ এবার বিক্রির তালিকায়। দাম হাঁকা হয়েছে ১০০ মিলিয়ন ইউএস ডলার।

বাড়িটিতে একসময় চিড়িয়াখানা ছিলো, অ্যামিউজমেন্ট পার্ক ছিলো, ছিলো নিজস্ব ফায়ার স্টেশন। এসবের কিছুই এখন আর নেই। তবুও একটি ফুলেল ঘড়ি আর রেলপথ সেই পুরনো সময়কে ধারণ করে দাঁড়িয়ে আছে।

১৯৯৭ সালে ১৯.৫ মিলিয়ন ইউএস ডলারে এই বাড়িটি কিনেছিলেন জ্যাকসন। কিন্তু টাকা শোধ করতে গিয়ে বেশ ভুগতে হয় তাকে। অবশেষে একটি ইনভেস্টমেন্ট কোম্পানী এসে বাড়িটিকে নিলামের হাত থেকে বাঁচায়।

এখন এই সম্পত্তি সিকামোর ভ্যালি রাঞ্চ নামেই পরিচিত। ২০০৯ সালে জ্যাকসনের মৃত্যুর পর এই সম্পত্তির অনেক সংস্কার সাধন করা হয়েছে।

২,৮০০ একরের উপর তৈরি বাড়িটে এখন সওদেবি’স এবং হিলটন ও হাইল্যান্ড যৌথভাবে বিক্রি করছে।

তবে এরই মধ্যে মাইকেল ভক্তদের জন্য এই এস্টেটের শেষ দর্শন নিষিদ্ধ করেছে সওদেবি’স ইন্টারন্যাশনাল রিয়ালিটির সুজানে পারকিন্স।

২০০৬ সালে কর্মীদের বেতন দিতে না পারায় এবং সঠিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে না পারায় পার্কটি বন্ধ করে দেয়া হয়।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসপি

উপরে