আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ০০:৩৫

ডিম্বাশয়ে সিস্টের কারণ ও করণীয়

বিডিটাইমস ডেস্ক
ডিম্বাশয়ে সিস্টের কারণ ও করণীয়

নারীর ওভারি অথবা ডিম্বাশয়ের সিস্ট সাধারণত জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। মূলত ডিম্বাশয়ে পানিপূর্ণ থলেকে ওভারিয়ান সিস্ট বলা হয়।  

হরমোনের সমস্যা, অনিয়মিত পিরিয়ড, অল্পবয়সে ঋতুস্রাব শুরু, ইত্যাদি নানান কারণে বেশিরভাগ মহিলারই এখন সিস্টের সমস্যায় ভোগেন। সমস্যা শুরু হচ্ছে বয়ঃসন্ধিতে। কিন্তু দেরিতে বিয়ে, অনিয়মিত যৌন জীবন, দেরিতে সন্তান নেয়ার কারণে ক্রমশই বাড়ছে এই সমস্যা। কিন্তু এর থেকে বাঁচার উপায় কী? আসুন জেনে নেওয়া যাক।

ইস্ট্রজেন নিয়ন্ত্রণ- ইস্ট্রজেন হরমোনের সাম্য নষ্ট হওয়া ওভারিয়ান সিস্টের অন্যতম কারণ। সিস্ট রুখতে শরীরে ইস্ট্রজেন ভারসাম্যের দিকে নজর রাখুন। প্রোটিন, প্রসেসড মিট শরীরে ইস্ট্রজেনের পরিমাণ বাড়ায়। খেতে হবে অরগানিক মিট এবং দুগ্ধজাত খাবার। সাবধান, প্লাস্টিকের বোতলে পানি রেখে খেলেও রাসায়নিক বিক্রিয়ার ফলে ইস্ট্রজেনের পরিমাণ বাড়ে।

ওভিউলেশন নিয়মিত করতে ও জনন তন্ত্রে রক্ত সঞ্চালন বাড়াতে সাহায্য করে গাছগাছালির মূল। ইস্ট্রজেনের সঠিক মাত্রা বজায় রাখে ড্যান্ডেলিয়ন, মিল্ক থিসল।

খাওয়া দাওয়ার অনিয়ম, অস্বাস্থ্যকর খাবার ও অনিয়মিত লাইফস্টাইল ওভারিয়ান সিস্টের অন্যতম কারণ। খাবারের তালিকায় রাখুন ফল, সবুজ শাক-সব্জি ও বেশিমাত্রায় গোটা শস্যের পরিমাণ।

অতিরিক্ত ওজনের জন্যও ওভারিয়ান সিস্টে আক্রান্ত হচ্ছেন মহিলারা। মেদ ঝরিয়ে ফেলুন। সম্ভাবনা কমবে ওভারিয়ান সিস্টের।

হরমোনের ব্যালান্স ঠিক রাখতে সাহায্য করে কিছু ভিটামিন ও সাপ্লিমেন্ট। ভিটামিন ই, ফ্লাক্সসিড অয়েল, ম্যাগনেসিয়াম, ভিটামিন বি তার মধ্যে অন্যতম।

বেশিরভাগ  মহিলারাই ডাক্তার এড়িয়ে চলেন। কিন্তু কোনও রকম সমস্যা মনে হলেই আগে চিকিত্‌সকের পরামর্শ নিন।

বিডিটাইমস৩৬৫.কম/আকাশ

উপরে