আপডেট : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৯:২০

ভুঁড়ি কমান সাধারণ কিছু ব্যায়ামের মাধ্যমে!

নিজস্ব প্রতিবেদক
ভুঁড়ি কমান সাধারণ কিছু ব্যায়ামের মাধ্যমে!

ওজন কমছে, কিন্তু ভুঁড়ি কমছে না, এই অভিযোগ অনেকের। আসলে নিয়মিত হাঁটা, দৌড়ানো বা দড়ি লাফানোর মাধ্যমেই হতে পারে পেটের ব্যায়াম। এ ছাড়া আরও কিছু ব্যায়াম রয়েছে, যেগুলো প্রতিদিন দুই বেলা করা যায়।


১. সোজা হয়ে শোয়া অবস্থা থেকে মাথা ও দুই হাত উপরে তুলতে থাকুন এবং ধীরে ধীরে দুই পায়ের পাতা স্পর্শ করতে চেষ্টা করুন। হাঁটু ভাঁজ করবেন না। আবার এই ব্যায়ামে ডান হাত দিয়ে বাঁ পায়ের পাতা এবং বাঁ হাত দিয়ে ডান হাতের পাতাও ধরতে চেষ্টা করতে পারেন।

২. দাঁড়ানো অবস্থা থেকে ধীরে ধীরে ঝুঁকতে থাকুন। হাঁটু ভাঁজ না করে দুই পায়ের পাতা স্পর্শ করতে চেষ্টা করুন। এ ক্ষেত্রে দুই পা ফাঁক করে ডান হাত দিয়ে বাঁ পায়ের পাতা এবং বাঁ হাত দিয়ে ডান পায়ের পাতাও ধরার চেষ্টা করা যেতে পারে।

৩. শুয়ে থেকে পা দুটোকে সোজাভাবে ওপরের দিকে ওঠান। পা ওঠানোর সময় ঘাড় ওঠালে আরও ভালো। একবার বাঁ পা এবং একবার ডান পা উঠিয়েও ব্যায়ামটি করা যায়।

৪. শুয়ে থাকা অবস্থায় দুই পা, দুই হাত ও মাথা ওঠান। অথবা মাথার সঙ্গে ডান হাত ও বাঁ পা ওঠাতে পারেন। এরপর মাথার সঙ্গে বাঁ হাত ও ডান পা-ও ওঠাতে হবে। এই ব্যায়ামের সময় হাত ও পা বেশ কাছাকাছি আনতে হবে।

৫. শোয়া অবস্থায় দুই হাঁটু ভাঁজ করুন। শরীর না উঠিয়ে শুধু মাথা ওঠান (যতটা পারা যায়) এবং দুই হাত লাগিয়ে রাখুন মাথার পেছন দিকটায়।

৬. শোয়া অবস্থায় দুই পায়ের সাহায্যে সাইকেল চালানোর অঙ্গভঙ্গি করতে পারেন।

৭. দাঁড়ানো অবস্থায় কোমরের পেছনে হাত দিয়ে চাপ দিয়ে ধরুন এবং একই সঙ্গে পেছনের দিকে পিঠ বাঁকান।

৮. এ ছাড়া দ্রুতগতিতে সাইকেল চালাতে পারেন। পেটের মেদ কমাতে এটিও বেশ ভালো ব্যায়াম।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসপি

উপরে