আপডেট : ৬ জানুয়ারী, ২০১৬ ২০:০৭

‘চরম পরীক্ষা’র আগেও কনডমের আছে আরো পরীক্ষা!

বিডিটাইমস ডেস্ক
 ‘চরম পরীক্ষা’র আগেও কনডমের আছে আরো পরীক্ষা!

কনডম বলে নাক সিঁটকাবেন না। কেননা, স্বাস্থ্যের একটি বড় অংশ জুড়ে রয়েছে কনডমই। ফলে, কঠিন পরীক্ষায় পাশ করতে হয় তাকেও। অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে তবেই হাতে আসে কনডম।

ব্রেকিং, স্লিপিং এবং লিকিং এই তিনটি পরীক্ষার মধ্যে দিয়েই মূলত চরম পরীক্ষার জন্য রেডি হয় কনডম।

কনডম তৈরির ক্ষেত্রে উচ্চ তাপ এবং ধারালো যন্ত্রের ব্যবহার হয়। ফলে, সমস্যা থাকার সম্ভাবনা থাকে পুরোমাত্রায়। এর জন্য, আরও একধাপ পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়।

কনডমের স্ট্রেচিংয়ের উপর জোর দেওয়া হয় সবথেকে বেশি। এর জন্য রয়েছে একাধিক পরীক্ষা। এর পরেই রয়েছে ইনফ্লেশন টেস্ট। নির্দিষ্ট পরিমাণ হাওয়া ঢোকানোর আগে কনডম ফেটে যাওয়ার অর্থ পরীক্ষায় ফেল।

লিকেজ পরীক্ষার জন্য কনডমে জল ভরে ঝুলিয়ে রাখা হয় বেশ কিছুক্ষণ। এর পরে জল-ভর্তি কনডম অ্যাবসরবেন্ট পেপারের উপর দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। বিদ্যুৎ ব্যবহার করে, ‘ওয়েট অ্যান্ড ড্রাই’ টেস্টও করা হয় লিকেজ পরীক্ষার জন্য। কনডম এ ক্ষেত্রে পাশ করল কি না, তা নির্ধারণ করে কম্পিউটার।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/পিএম

উপরে