আপডেট : ২২ জুলাই, ২০১৮ ২০:৫০

এরদোয়ানের সঙ্গে সাক্ষাত নিয়ে যা বললেন ওজিল

অনলাইন ডেস্ক
এরদোয়ানের সঙ্গে সাক্ষাত নিয়ে যা বললেন ওজিল

তুর্কিস্তানের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ানের সঙ্গে ছবি তোলায় জার্মান ফুটবল ফেডারেশনের (ডিএফবি) রোষানলে পড়েছিলেন মেসুতো ওজিল। এ নিয়ে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা ভক্তরাও কম কথা শুনাননি তাকে। অবশেষে তুর্কিস্তানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সাক্ষাতের বিষয়টি খোলাসা করলেন ওজিল। 

জানালেন, ‘জার্মানিতে বসবাসকারী অনেকের মতো আমার পূর্ব পুরুষরা তুর্কি থেকে এসেছেনে। মূলত আমরা তুর্কী বংশোদ্ভুত। সে হিসেবে আমাদের দুই দেশেরই নাগরিকত্ব রয়েছে। একটি জামার্নি, অন্যটি তুর্কির।’

‘ছোটবেলা থেকে আমার মা আমাকে শ্রদ্ধাশীল হতে শিখিয়েছে। এমনকি আমাদের মূল নিয়েও শিক্ষা দিতেন। ছোটবেলা থেকেই আমরা আমাদের পূর্ব পুরুষদের সম্পর্কে ভালো ধারণা রাখি। ’

‘২০১০ সালে সর্বপ্রথম তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের সঙ্গে সাক্ষাত হয়েছিল আমার।  বার্লিনে অনুষ্ঠিত জার্মানি বনাম তুর্কি ম্যাচ দেখতে এসেছিলেন তিনি। এরপর সর্বশেষ লন্ডনে শিক্ষা ও  চ্যারিটেবল ইভেন্টে তার সঙ্গে দেখা হয় আমার। আর সে সময়কার মিস্টার এরদোয়ানের সঙ্গে তোলা একটি ছবি বিশ্বজুড়ে অনেক আলোচনা সমালোচনার জন্ম দেয়। বিশেষ করে জার্মানি মিডিয়া এটাকে মিথ্যাভাবে উপস্থাপন করে।  বলে, এই ছবি রাজনৈকি উদ্দেশ্যে তোলা হয়েছিল। যা সত্যি মিথ্যা।’

‘আমার সাথে তোলা ছবি মিস্টার এরদোয়ান তার রাজনৈতিক কিংবা নির্বাচনের কাজে ব্যবহার করেননি। এটি শুধুমাত্র আমার এবং আমার পরিবারের প্রতি সম্মান দেখানোর খাতিরে তোলা হয়েছিল।  সত্যিকথা বলতে আমি একজন ফুটবলার, রাজনীতিবিদ নই।’

‘ আমার দুঃখ এক জায়গায়। সেটা হচ্ছে, জার্মান মিডিয়া আমাদের মিটিংয়ের বিষয়টিকে ভিন্নভাবে উপস্থাপন করেছে।’-গোল.কম

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে