আপডেট : ২১ জুলাই, ২০১৮ ২০:১১

কোন ক্লাব কোন তারকা ফুটবলারকে কিনতে চায়?

অনলাইন ডেস্ক
কোন ক্লাব কোন তারকা ফুটবলারকে কিনতে চায়?

বিশ্বকাপের আসর শেষ হতে না হতেই শুরু হয়ে গেছে ক্লাব মৌসুমের উত্তেজনা। এখনো ক্লাব মৌসুমের খেলাগুলো শুরু না হলেও ট্রান্সফার মার্কেট নিয়ে সমর্থক ও ক্লাবগুলোর মধ্যে উত্তেজনার কমতি নেই। এবার ট্রান্সফার মার্কেটে চমক শুরুই হয়েছে রোনালদোর মাদ্রিদের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে জুভেন্টাসে যাওয়ার মধ্য দিয়ে। এছাড়া এবারের ট্রান্সফার মৌসুমে আরও কিছু নতুন চমক দেখা যেতে পারে। আসুন দেখে নেই সম্ভাব্য চমকগুলো।

পল পগবা

বর্তমানে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে খেলছেন সদ্য বিশ্বকাপ জয়ী এই তারকা। বিশ্বকাপের পারর্ফরম্যান্স ও ক্লাবের পার্ফরম্যান্স সব মিলিয়ে এবারের ট্রান্সফার মার্কেটে তাঁর দাম উঠতে পারে ১৭৪ মিলিয়ন। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে তাঁকে দলে নিতে প্যারিস সেইন্ট জার্মেইন, জুভেন্টাস ও বার্সেলোনা আগ্রহ দেখিয়েছে।

এডেন হেজার্ড

চেলসির এই তারকা দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন। বিশ্বকাপেও নজরকারা পার্ফরম্যান্স করেছেন তিনি। সব কিছু মিলিয়ে তাঁকে দলে নিতে হলে প্রায় ১৯৮ মিলিয়ন টাকা খরচ করতে হবে আগ্রহী দলগুলোকে। তাঁকে দলে নিতে এখন পর্যন্ত শুধু মাত্র রিয়াল মাদ্রিদই আগ্রহ দেখিয়েছে।

থিবো কর্তুয়া

চেলসির এই তারকা গোলকিপার এবারের বিশ্বকাপে দুর্দান্ত পারফর্ম করে জায়গা করে নিয়েছেন বিশ্বকাপের সেরা একাদশে। বিশ্বকাপ শেষে নিজেই ইঙ্গিত দিয়েছেন চেলসি ছাড়ার। তাঁকে দলে নিতে হলে যেকোনো দলকে খরচ করতে হবে ৪১ মিলিয়ন ডলার। এখন পর্যন্ত তাঁকে কিনতে রিয়াল মাদ্রিদ আগ্রহ দেখিয়েছে।

সারগেজ মিলিনকোভিচ-সাভিচ

লাযিওতে খেলা এই তারকা দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন। সব মিলিয়ে তাঁর বাজার দর এখন প্রায় ১৪০ মিলিয়ন ডলার। তাঁকে দলে নিতে এখন পর্যন্ত তিনটি ক্লাব আগ্রহ দেখিয়েছে। রিয়াল মাদ্রিদ, চেলসি ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তালিকায় রয়েছে।  

রবার্ট লেওয়ানডস্কি

বর্তমান সময়ে সেরা স্ট্রাইকার বলা হয় তাঁকে। বায়ার্ন মিউনিখের এই তারকা খেলোয়াড় গত মৌসুম দুর্দান্ত খেলেছেন। যদিও বিশ্বকাপে তাঁর সময়টা একদম ভালো যায়নি। তারপর তাঁকে দলে নিতে হলে দলগুলোকে প্রায় ১০০ মিলিয়ন খরচ করতে হবে। এখন পর্যন্ত রিয়াল মাদ্রিদ, চেলসি ও পিএসজি তাঁকে কেনার ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছে।

এনগলো কান্তে

কান্তে বিশ্বকাপে দারুণ খেলেছেন। বলতে গেলে তাঁর দুর্দান্ত পার্ফরম্যান্সের কারণে ফ্রান্সের ঘরে দ্বিতীয় শিরোপা এসেছে। সবকিছু মিলিয়ে তাঁর বর্তমান বাজার দর ১১৬ মিলিয়ন। এখন পর্যন্ত তাঁকে দলে নিতে বার্সেলোনা ও পিএসজি আগ্রহ দেখিয়েছে।

ইভান পেরেসিচ

ইন্টার মিলানের এই তারকা বিশ্বকাপে দুর্দান্ত খেলে ক্রোয়েশিয়াকে ফাইনালে নিয়ে গিয়েছেন। ফাইনালে গোল পেলেও দলকে জেতাতে পারেননি বিশ্বকাপ। কিন্তু দলকে বিশ্বকাপ জেতাতে না পারলেও ক্লাবগুলো তাঁর প্রতি বেশ আগ্রহ দেখিয়েছে। এখন পর্যন্ত শুধু মাত্র ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড আগ্রহ দেখিয়েছে তাঁর প্রতি। তাঁকে দলে নিতে হলে ইংলিশ ক্লাবটিকে প্রায় ৮১ মিলিয়ন খরচ করতে হবে।

হ্যারি কেইন

বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনি। স্বাভাবিকভাবেই তাঁর দিকে এবারের ট্রান্সফার মৌসুমে ক্লাব গুলোর বেশ আগ্রহ থাকবে। তবে তাঁকে দলে নিতে গেলে হয়তো ট্রান্সফার মার্কেটের রেকর্ড ভাঙতে হতে পারে। নেইমারের ২২২ মিলিয়ন রেকর্ডও ভেঙ্গে যেতে পারে সেই ক্ষেত্রে। সব মিলিয়ে তাঁর বর্তমান মূল্য ২৩৩ মিলিয়ন ডলার। দাম অনেক বেশি হওয়ায় এখন পর্যন্ত শুধু মাত্র রিয়াল মাদ্রিদই আগ্রহ দেখিয়েছে।

মার্সেলো

রিয়াল মাদ্রিদের ডিফেন্সের অন্যতম ভরসার প্রতীক তিনি। রোনালদো চলে যাওয়ার পর থেকে মার্সেলোর ট্রান্সফার নিয়ে বেশ গরম ট্রান্সফার মার্কেট। শোনা যাচ্ছেন বন্ধুর সঙ্গেই তিনি যোগ দিচ্ছেন জুভেন্টাসে। সে জন্য জুভেন্টাসের খরচ করতে হবে ৫৮ মিলিয়ন। 

নেইমার

বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় নেইমার। দলকে এবার বিশ্বকাপ জেতাতে না পারলেও তিনি দুর্দান্ত খেলেছেন। গত ক্লাব মৌসুমে রেকর্ড পরিমান অর্থের বিনিময়ে পিএসজিতে যোগ দিয়েছেন তিনি। বেশ কয়েক মাস ধরেই শোনা যাচ্ছিল নেইমার সেখানে থাকতে চাচ্ছেন না। যদিও পিএসজি তাঁর জন্য ২২২ মিলিয়ন খরচ করেছে। সেই হিসেবে সহজে তাঁকে অন্য ক্লাবে যেতে দিবে না। তাঁকে দলে নিতে গেলে আগ্রহী দলকে খরচ করতে হবে প্রায় ৪০৭ মিলিয়ন ডলার! যদিও এখন পর্যন্ত রিয়াল মাদ্রিদ আগ্রহ দেখিয়েছে তাঁর প্রতি।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে