আপডেট : ২০ জুন, ২০১৮ ১৯:৩৪

ব্যথা নিয়ে অনুশীলন ছাড়লেন নেইমার

অনলাইন ডেস্ক
ব্যথা নিয়ে অনুশীলন ছাড়লেন নেইমার

আবারও ইনজুরি শঙ্কা ভর করেছে ব্রাজিল শিবিরে। অনুশীলন থেকে গোড়ালির ব্যথা নিয়ে আগেভাগেই উঠে যান তারকা স্ট্রাইকার নেইমার। তবে তার সতীর্থদের বিশ্বাস, পরবর্তী ম্যাচের আগেই ফিট হয়ে উঠবেন তিনি।

গত মঙ্গলবার (১৯ জুন) ব্রাজিল দলের অনুশীলনের এক পর্যায়ে গোড়ালিতে ব্যথা অনুভব করেন ব্রাজিল দলের প্রাণভোমরা নেইমার। খানিক বাদেই ব্যথায় কাতরাতে কাতরাতে মাঠ ছাড়েন তিনি। সতীর্থরা বলছেন বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র হওয়া ম্যাচের আঘাতেই ইনজুরি শঙ্কা তৈরি হয়েছে নেইমারের।

দলের সতীর্থদের সাথে সোচিতে পাসিং অনুশীলন করছিলেন নেইমার। অনুশীলনের এক পর্যায়ে ডান পায়ের গোড়ালিতে ব্যথা অনুভব করেন দলের প্রধান খেলোয়াড়। সাথে সাথেই মাঠে নেমে নেইমারকে অনুশীলন থেকে তুলে নেন ব্রাজিল দলের ফিজিও ব্রুনো মাজিওত্তি।

পরে আর অনুশীলনে নামতে দেখা যায়নি নেইমারকে। এর ফলে তার ইনজুরি শঙ্কা ছাপ ফেলেছে ব্রাজিল দলে। কোচ তিতেও স্বীকার করেছেন অস্ত্রোপচারের পর এখনও শতভাগ ফিট নন নেইমার। তবে প্রথম ম্যাচে ড্র হওয়ায় কোস্টারিকার বিপক্ষে শুক্রবারের (২২ জুন) ম্যাচে নেইমার খুব প্রয়োজন ব্রাজিলের।

বিশ্বের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় নেইমারের ইনজুরি নিয়ে সমর্থকদের কপালে পড়ে যাওয়া চিন্তার ভাঁজ মুছে দিতে দলের মুখপাত্র ভিনিসিয়াস রদ্রিগেজ বলেছেন, ‘আগামীকাল থেকেই স্বাভাবিক অনুশীলন করবেন নেইমার।’

নেইমারের সতীর্থ কুতিনহো দাবি করেছেন, ‘আমি মনে করি সে কিছুটা ব্যথা পেয়েছে, কিন্তু এটা স্বাভাবিক। সে (গত ম্যাচে) প্রচুর ফাউলের শিকার হয়েছে। অনেক লাথিও সইতে হয়েছে তাকে।’

রোববার (১৭ জুন) সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ১০বার ফাউলের শিকার হন নেইমার। ১৯৯৮ সালের বিশ্বকাপের পর যা সর্বোচ্চ।

২০১৪ সালের বিশ্বকাপে কলম্বিয়ার হুয়ান জুনিগার মারাত্মক ফাউলের শিকার হয়ে মেরুদণ্ডের হাড় ভেঙে যায় নেইমারের। তার অনুপস্থিতিতে জার্মানির বিপক্ষে ৭-১ গোলে হেরে যায় ব্রাজিল। সেই ম্যাচ নিয়ে নেইমার সম্প্রতি বলেছেন, ‘আমি অবশ্যই সেই ম্যাচ আবারও খেলতে চাইবো। আমি যদি সেই ম্যাচে থাকতাম, আমি বিশ্বাস করি, ফলাফল ভিন্ন হতো।’

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে