আপডেট : ২০ অক্টোবর, ২০১৭ ১৮:২৯

মোজার ভিতর থেকে কি ট্যাবলেট বের করে খেলেন মেসি?

অনলাইন ডেস্ক
মোজার ভিতর থেকে কি ট্যাবলেট বের করে খেলেন মেসি?

বুধবার রাতে চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বে অলিম্পিয়াকোসের বিপক্ষে ৩-১ গোলে জয়ের দিনে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শততম গোলের মাইলফলক পৌঁছেছেন মেসি। তবে ম্যাচটিতে বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন তারকার বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন অনেক নিন্দুক। 

ম্যাচের প্রথমার্ধের দশম মিনিটের মাথায় মাঝমাঠে থেমে মোজার ভেতর থেকে কিছু একটা বের করে মুখে দেন মেসি। ম্যাচ চলাকালীন শক্তিবর্ধক কোনো দ্রব্য খেয়েছেন কিনা এমন প্রশ্ন তুলেন অনেক।  এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রীতিমত ঝড় উঠেছে।

যদিও পরে জানা যায় কোনো শক্তিবর্ধক দ্রব্য নেননি মেসি। কেবল ক্লান্তি কাটাতে গ্লুকোজ ট্যাবলেট মুখে নিয়েছিলেন তিনি। ফুটবলে খেলা চলাকালীন সময়ে এ ধরনের ঘটনা অপরাধের মধ্যে পড়ে না। এই পদ্ধতিকে বলা হয়, ‘জেলি বেবি থিওরি। মাঠে নামার প্রথম ১৫ মিনিটে শরীরের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গগুলো ঠিক রাখতে এই ধরনের ওষুধ সেবন করা যায়।

মার্কার বরাত দিয়েই জানা গেছে, অলিম্পিয়াকোসের বিপক্ষে একটি গোল করে ইউরোপীয় প্রতিযোগিতায় ১০০ গোল পূর্ণ করার দিন নিজের ক্লান্তি মেটাতে গ্লুকোজ ট্যাবলেট সেবন করেন মেসি। সেখানে বলা হয়, ‘মাঠে নামার প্রথম ১৫ মিনিটে শরীরের সবচেয়ে কার্যকরী অঙ্গ-প্রত্যঙ্গগুলো ঠিক রাখতে এই ধরনের ওষুধ সেবন করা হয়।’

সেখানে আরও জানানো হয়েছে, মেসি দীর্ঘদিন ধরে এই কাজ করে আসছেন। কারণ, ম্যাচের আগে ও পরে তার বমি বমি ভাব হয়। সেটা কাটাতেই গ্লুকোজ ট্যাবলেটের ওপর নির্ভর করেন তিনি। বার্সেলোনার কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে নিজেও মেসির এই ব্যাপারটা নিয়ে অবগত।

ম্যাচের পর ভালভার্দে বলেন, ‘সে গ্লুকোজ ট্যাবলেট সেবন করেছে কিনা আমার জানা নেই। তবে এটা যদি তাকে গোল করতে সাহায্য করে, তাহলে চাপ কমানোর জন্য সে গ্লুকোজ ট্যাবলেট খেতেই পারে। তবে হ্যাঁ, আমি জানি ফুটবলারদের জন্য গ্লুকোজ ট্যাবলেট খাওয়া খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার।’

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে