আপডেট : ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৩:৪৬

সেভিয়াকে হারিয়ে শীর্ষে বার্সা

স্পোর্টস ডেস্ক
সেভিয়াকে হারিয়ে শীর্ষে বার্সা

১৯৮৯ সালে লিও বেনহেকার্সের অধীনে রিয়াল মাদ্রিদ যে গর্বের রেকর্ড তৈরী করেছিল, লুইস এনরিকের বার্সেলোনা সেই গর্বটা এবার ভেঙে দিতে বসেছে। ইতিমধ্যেই রিয়ালের সেই গর্বে ভাগ বসিয়ে দিয়েছে বার্সা। ন্যু ক্যাম্পে সেভিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়ে টানা ৩৪ ম্যাচ অপরাজিত থাকার রিয়াল মাদ্রিদের রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছে মেসি-নেইমার-সুয়ারেজদের বার্সেলোনা। ৪ মার্চ রায়ো ভায়োকানোর মাঠ থেকে জয় তুলে আনতে পারলেই নতুন ইতিহাস তৈরী করে ফেলবে কাতালানরা।   

নিজেদের মাঠে খেলা। তবুও সেভিয়ার কাছে প্রথমে গোল খেয়ে পিছিয়ে পড়েছিল বার্সেলোনা। ২০ মিনিটে ভিতোলোর গোলে এগিয়ে যায় সেভিয়া। তবে শেষ পর্যন্ত লিওনেল মেসি এবং জেরার্ড পিকের গোলে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে কাতালানরা। গত সপ্তাহে সর্বশেষ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলর প্রথম লেগের ম্যাচে আর্সেনালের বিপক্ষে খেলা ম্যাচটির একাদশে ৫টি পরিবর্তণ এনেছিলেন লুইস এনরিকে। তবুও বিখ্যাত এমএসএন জুটিকে বাদ দেননি তিনি।

এই জয়ের ফলে স্প্যানিশ লা লিগার পয়েন্ট টেবিলে নিরঙ্কুশ অবস্থান তৈরী করলো বার্সেলোনা। ২৬ ম্যাচ শেষে তাদের পয়েন্ট ৬৬। দ্বিতীয় স্থানে থাকা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের চেয়ে ৮ পয়েন্ট এগিয়ে তারা। অ্যাটলেটিকোর পয়েন্ট ৫৮। অপরদিকে রিয়াল মাদ্রিদ ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে তৃতীয় স্থানে। আর বার্সেলোনার সঙ্গে তাদের ব্যবধান এখন ১২ পয়েন্টের।

সর্বশেষ গত অক্টোবরে কোন ম্যাচ হেরেছিল বার্সেলোনা। তাও এই সেভিয়ার কাছে। তাদের মাঠ স্টাডিও সানচেজ পিজজুয়ানে ২-১ গোলে হেরে এসেছিল বার্সা। এরপর আর কোন পরাজয়ের স্বাদ নিতে হয়নি লুইস এনরিকেদের। সেই সেভিয়াকে হারিয়েই বার্সা গড়ে ফেলেছে টানা ৩৪ ম্যাচ অপরাজিত থাকার রেকর্ড।  

ন্যু ক্যাম্পে বার্সা-সেভিয়া ম্যাচটি দেখার জন্য উপস্থিত হয়েছিল প্রায় ৮০ হাজার দর্শক। কিন্তু খেলার ২০ মিনিটেই পুরো ন্যু ক্যাম্পকে স্তব্ধ করে দিলেন ভিতোলো। বেনোইত ত্রিমোলিনাসের ক্রস থেকে বল পেয়ে ডান পায়ের দুর্দান্ত শটে বার্সার জাল কাঁপিয়ে দেন ভিতোলো। তবে বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি বার্সাকে। ৩১ মিনিটেই দুর্দান্ত এক ফ্রি কিক থেকে বার্সাকে সমতায় ফেরান লিওনেল মেসি। প্রথমার্ধ শেষ হলো ১-১ গোলে।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই গোল পেয়ে গেলো বার্সেলোনা। লিওনেল মেসি গোল করার জন্য পাস দেন লুইস সুয়ারেজকে। সুয়ারেজ সুযোগ না পেয়ে বল ঠেলে দিলে আগুয়ান জেরার্ড পিকে দুর্দান্ত শট করে বল জড়িয়ে দেন সেভিয়ার জালে। অবশেষে পিকের এই গোলেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়লো বার্সেলোনা।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে