আপডেট : ২৮ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৫:৩৯

কোপা দেল’রের শেষ চারে অপ্রতিরোধ্য বার্সা

বিডিটাইমস ডেস্ক
কোপা দেল’রের শেষ চারে অপ্রতিরোধ্য বার্সা

অপ্রতিরোধ্য বার্সা তা আরও একবার প্রমাণ করলো। নিজেদের মাঠে খেলতে নেমে শুরুতে গুছিয়ে উঠতে কিছুটা সময় নেন বার্সা। তবে নেইমার-সুয়ারেসের অসাধারণ নৈপুণ্যে কোপা দেল’রের সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করেছে স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনা। ২৭ জানুয়ারি নিজেদের মাঠ ক্যাম্প ন্যুতে ফিরতি লেগে ৩-১ গোলে জেতে বার্সা।  দুই লেগ মিলিয়ে বার্সেলোনার জয় ৫-২ ব্যবধানে, প্রথম পর্বে ২-১ গোলে জিতেছিল তারা।

হ্যামস্ট্রিং পেশির চোটের কারণে গত ২৩ জানুয়ারি লা লিগায় মালাগার বিপক্ষে ছিলেন না নেইমার। শেষ পর্যন্ত সব শঙ্কা কাটিয়ে শুরুর একাদশেই মাঠে নামেন নেইমার। দুই ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরেন সুয়ারেজ। সঙ্গে তো দলের সেরা তারকা মেসি ছিলেনই। টানা তিন ম্যাচ পর একসঙ্গে মাঠে দেখা মিলল বার্সার আক্রমণভাগের ত্রিফলাকে। তবে ঘরের মাঠে বার্সার শুরুটা ছিল হতাশারই।

ম্যাচের ১২ মিনিটেই ইনাকি উইলিয়ামসের গোল এগিয়ে গিয়েছিল অ্যাথলেটিক বিলবাও।সতীর্থ আরিতজ আদুরিজের ক্রস ধরে বার্সা গোলরক্ষক টের স্টেগেনকে ফাঁকি দিয়ে বল জালে জড়িয়ে দেন উইলিয়ামস। প্রথমার্ধে ১-০ গোলে পিছিয়ে থাকা কাতালান ক্লাবটি কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধেই প্রমাণ করে দেয় কেন তারা বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম শক্তিশালী দল।

বিরতির পর শুরুতেই (৫৩ মিনিট) বার্সাকে সমতায় ফেরান সুয়ারেজ। ডি বক্সের মধ্যে বাঁদিক থেকে মেসির আড়াআড়ি পাসে প্রথম শটেই লক্ষ্যভেদ করেন এই উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার। কোপা ডেল রের এবারের আসরে এটা তার প্রথম এবং চলতি মৌসুমে ক্লাবের হয়ে ৩০তম গোল। চলতি মৌসুমে ইউরোপের আর কোনো স্ট্রাইকারই ৩০ গোল করতে পারেননি।

সমতায় ফেরার পর অধিকাংশ সময়ই একচেটিয়া আক্রমণ করে যেতে থাকেন মেসি-নেইমার-সুয়ারেজরা। কিন্তু লিড নিতে পারছিলেন না। অবশেষে  ৮১ মিনিটে দারুণ এক হেডে বার্সাকে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে দেন জেরার্দ পিকে। আর অতিরিক্ত সময়ে নেইমারের গোল বার্সার জয়ের পাল্লাটা করে আরো ভারী।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

 

উপরে