আপডেট : ১ মার্চ, ২০১৬ ১১:১৮

বেঁচে যাওয়া ভাতের কিছু মুখরোচক রেসিপি

অনলাইন ডেস্ক
বেঁচে যাওয়া ভাতের কিছু মুখরোচক রেসিপি

পৃথিবীর বহু দেশের প্রধান খাবার ভাত। আমাদের দেশ এর মধ্যে অন্যতম। প্রতিদিন রান্না করা ভাতের কিছুটা থেকে যায়। অনেকেই একে পান্তা বানিয়ে খান। আবার অনেকে ফেলে দেন। এখানে বেঁচে যাওয়া ভাতের চারটি দারুণ রেসিপি দেওয়া হলো। চলুন জেনে নেওয়া যাক রেসিপিগুলো :-

১. ফ্রাইড রাইস

এই রেসিপি বেশ জনপ্রিয়। দুই টেবিল চামচ রান্নার তেল, এক টেবিল চামচ রসুন কুচি, এক টেবিল চামচ আদা কুচি, আধা টেবিল চামচ গোলমরিচ, আধা টেবিল চামচ মরিচের গুঁড়া, এক কাপ গাজর কুচি, দুই কাপ বাঁধাকপি কুচি, দুই কাপ ছোট করে কাটা মুরগির মাংস, চার কাপ ভাত এবং দুই টেবিল চামচ সয়া সস। একটি ননস্টিকি প্যানে তেল গরম করুন। এতে রসুন, আদা ও পেঁয়াজ ভেজে নিন। এতে মরিচ ও মরিচের গুঁড়া মেশান। মুরগির মাংস দিয়ে ভাজুন। সামান্য ভাজার পর গাজর, বাঁধাকপি মেশান। এতে আরো ঢেলে দিন মুরগি ও অন্যান্য উপকরণ। সবার শেষে ভাত ও সয়া সস মেশান।

২. জুসিনি অ্যান্ড ফেটা রাইস টার্ট

বাড়তি ভাতের দারুণ রেসিপি এটি। প্রয়োজন এক কাপ ভাত, এক টেবিল চামচ রান্নার তেল, স্লাইস করা দুটি ধুন্দল, ১৫০ গ্রাম ক্রিমপূর্ণ পনির, ১০০ গ্রাম টমেটো কুচি, ছয়টি সবুজ মরিচ এবং চারটি ডিম। ওভেন ২০০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে গরম করে নিন। ভাত ঠাণ্ডা পানির ধারায় কিছুক্ষণ রেখে দিন। এবার আলাদা গামলায় রাখুন। একটি ননস্টিকি প্যানে অলিভ অয়েল নিয়ে উচ্চ তাপে গরম করুন। এতে ধুন্দল তিন মিনিট ধরে ভেজে নিন। পনির, টমেটো ও অন্যান্য উপকরণ নিন। গামলার ভাতও ঢেলে দিন প্যানে। এই মিশেল একটি ট্রেতে চেপে চেপে বসান এবং ওভেনে ২৫ মিনিট রেখে দিন।

৩. কর্ন স্পিনাচ রাইস ফ্রিটারস

এই রেসিপিতে ভাতকে মজাদার মচমচে ফ্রিটার বানাতে পারবেন। ফ্রিটারের বহিরাবরণ তৈরিতে লাগবে আধা কাপ ময়দা ও এক কাপের তিন-চতুর্থাংশ পানি। আরো লাগবে চার টেবিল চামচ মাখন, পাঁচ টেবিল চামচ ময়দা, এক কাপ দুধ, দুই কাপ ভাত, এক কাপ ভুট্টার দানা, তিন টেবিল চামচ সিদ্ধ করা পালং শাকের পাতা কুচি, দুই টেবিল চামচ ধনেপাতা কুচি, তিনটি মরিচ, দুই টেবিল চামচ চিজ সল্ট, রান্নার তেল এবং টমেটো কেচাপ। মাখনকে ননস্টিকি প্যানে গরম করুন। এতে ময়দা নিন। দুধ ঢেলে ক্রমাগত নাড়তে থাকুন। ময়দার পাতলা মিশ্রণ এবার আগুন থেকে সরিয়ে নিন। আলাদা একটা গামলায় ভাত, কর্ন, পালং শাক, সস, ধনেপাতা, চিজ সল্টসহ অন্যান্য উপকরণ মেশান। এবার একে সমান আকারের বল বানিয়ে নিন। এই বলগুলোকে ময়দার তরলে ডুবিয়ে তেলে ভেজে নিন।

৪. রাইস সালাদ

বাড়তি ভাতের সালাদও হয়। জেনে নিন দারুণ সেই রেসিপি। একটি ইয়েলো বেল পিপার, একটি রেড বেল পিপার, দুই টেবিল চামচ এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ অয়েল, এক টেবিল চামচ ভিনেগার, দেড় টেবিল চামচ রসুন কুচি, চার টেবিল চামচ পেঁয়াজ কুচি, ৫০ গ্রাম কিশমিশ এবং ৫০ গ্রাম কাজু বাদাম। বেল পিপারের বিচিগুলো বের করে ফেলুন। একটি গামলায় অলিভ অয়েল, ভিনেগার, রসুন কুচি, পরিমাণমতো লবণ ও মরিচ মেশান। আরেকটি গামলায় ভাতের সঙ্গে বিচি বের করে ফেলা বেল পিপার, পেঁয়াজ কুচি, কিশমিশ ও কাজু বাদাম নিন। এবার ভাতের সঙ্গে এই গামলার সব কিছু মিলিয়ে নিন। হয়ে গেল ভাতের সালাদ।

উপরে