আপডেট : ৯ এপ্রিল, ২০১৬ ১৩:২৯

সেই ভিডিওটিই বদলে দিলো ছোট্ট জাহিদের জীবন!

বিডিটাইমস ডেস্ক
সেই ভিডিওটিই বদলে দিলো ছোট্ট জাহিদের জীবন!

এই ভিডিওটি হয়তো আপনাদের অনেকেরই চোখে পড়েছে- যেখানে দেখা যাচ্ছে কক্সবাজারের একটি ছোট্ট বালক একটি স্থানীয় গান গাইছে এবং তাকে সঙ্গ দিচ্ছেন এক পর্যটক। ঘটনাটির এখানেই শেষ নয়।

এটা একটি স্মরণীয় ঘটনা যেভাবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম নয় বছরের ওই বালকের জীবনে দারুণ পরিবর্তন এনেছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, কক্সবাজারের স্থানীয় কিশোর জাহিদ উকুলেলে বাদ্যযন্ত্রের তালে ‘মধু কই কই বিষ খায়াইলা’ শিরোনামে একটি ফোক গান গাইছে। এটি গতমাসের ঘটনা এবং সারা বাংলাদেশের মানুষ এটিকে নিয়ে মাতে। ফেসবুকে এই ভিডিওটি মহুর্তেই ছড়িয়ে পড়ে এবং কিছু কিছু সংবাদমাধ্যম এটি নিয়ে ফিচার তৈরী করে। এটি বিভিন্ন ফেসবুক পেজে শেয়ার করা হয় এবং সাধারণ মানুষও এটিকে ব্যাপক আকারে শেযার করে।

ইমরান হুসেন; ভিডিওর ওই পর্যটক ও বাদক যিনি কিনা ভিডিওটি পোস্ট করেছিলেন, তিনি দারুণ পরিচিতি লাভ করেন। কিন্তু কি ঘটলো ওই শিশু জাহিদের ক্ষেত্রে?

ভিডিওটির দারুণ জনপ্রিয়তা পেলে ইমরান আবারও কক্সবাজার ছুটে যান ওই ক্ষুদে প্রতিভাকে খুঁজে বের করতে। তিনি বিস্মিত হয়ে যান যখন দেখেন ওই এলাকাটিতে জাহিদ নতুন পরিচয় পেয়েছে এবং অনেকেই তাকে (ইমরানকে) জাহিদের ইমরান বলে সম্বোধন করছে।

উপকূলীয় রাস্তা ধরে হাঁটার সময় কে যেন ইমরানকে পেছন থেকে জড়িয়ে ধরে, সে আর কেউ নয় জাহিদ। সে ইমরানকে জানালো ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পর কিভাবে তার জীবনে নাটকীয় পরিবর্তন এসেছে। ভিডিও ভাইরালের পরপরই কক্সবাজারের একটি নামকরা হোটেল সায়মান রিসোর্টের বাউল সান্ধ্যায় জাহিদকে ভাড়া করে নেওয়া হয়। হোটেলের কর্তৃপক্ষ তাকে একটি স্কুলে ভর্তি করে দেয় এবং তাকে নতুন আরও গান শেখার জন্য উদ্যোগ গ্রহন করে। তবলা ও বাঁশির সঙ্গে জাহিদের এখনকার পরিবেশনা এখন সবার জন্যই উন্মুক্ত।

ইমরান বলেন, ‘আমি জানি, যথাযথ অনুশীলনের মাধ্যমে জাহিদ তার জীবনে দারুণ সফল হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ঘটনার এমন জনপ্রিয়তায় এবং জাহিদের জীবনে এর দারুণ প্রভাব পড়ায় আমি দারুণ খুশি।’

ছয় জনের পরিবারে জাহিদ এবং তার বড়ভাই-ই উপার্যন করে থাকে।

ওই এলাকায় আরও অনেক ছেলে মেযেই আছে, যারা জাহিদের মতো সমুদ্রোপকূলে ঘুরে বেড়ায় এবং পর্যটকদের নানা উপকরণ সরবরাহ করে এবং গানও শোনায়।

ইমরান বলেন, ‘আমি তাকে ঢাকা নিয়ে আসতে চাইনা। কারণ তার একটি পরিবার রয়েছে। তার পরিবারেই সে যথাযথভাবে বেড়ে উঠবে এবং ভালো থাকবে।’

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/মাঝি

উপরে