আপডেট : ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৯:২২

জাহাঙ্গীরনগরে ভালোবাসা দিবসে প্রকাশ্যে চুমু খাওয়ার অনুষ্ঠানের ঘোষণা সোশ্যাল মিডিয়ায়

বিডিটাইমস ডেস্ক
জাহাঙ্গীরনগরে ভালোবাসা দিবসে প্রকাশ্যে চুমু খাওয়ার অনুষ্ঠানের ঘোষণা সোশ্যাল মিডিয়ায়

ভালোবাসা একটা শক্তি। চুমু তার বহি:প্রকাশ। ভালোবাসা দিবসে প্রকাশ্যে এমন প্রকাশের মধ্য দিয়েই সকল অনাচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাবে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল ছাত্র-ছাত্রী। এ উপলক্ষ্যে তারা একটি ইভেন্টের আয়োজন করেছে।

‘জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার’ নামক একটি ফেসবুক পেজে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ছাত্রছাত্রীকে আমন্ত্রণ জানিয়ে সোমবার সকালে ইভেন্টটি প্রকাশ করা হয়। ইভেন্টে ইতোমধ্যেই ৪৭৩ জনকে আমন্ত্রণ পাঠানো হয়েছে। তাদের মধ্যে অনেকেই ইভেন্টটি সম্পর্কে আগ্রহ প্রকাশ করেছে এবং অনেকেই ইভেন্টে অংশগ্রহণ করার জন্য গো (GO) বাটন চেপেছে।

পেজ-এ ইভেন্টটির ভূমিকায় বলা হয়- ‘ভালোবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে নাকি করা পুলিশি নজরদারির ব্যবস্থা করা হয়েছে। ভারতে নাকি প্রকাশ্যে চুমু খেলে পুলিশ গ্রেফতারও করবে।

প্রতিবছরই এই দিনকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশের পুলিশ বিভিন্ন রকম হয়রানি করে। ধানমন্ডি লেকে, সোহরাওয়ার্দি উদ্যানে হাত ধরেও হাটা বিপজ্জনক হয়ে দাঁড়ায়।
এর প্রতিবাদে জাহাঙ্গীরনগরের সকল জুটিকে আহবান জানানো যাচ্ছে যে, স্ব স্ব প্রেমিক প্রেমিকাকে প্রকাশ্যে চুমু খাবার!

ওইদিন সারাদিন জাহাঙ্গীরনগর গেট, জয় বাংলা গেট,মুক্তমঞ্চ, সেন্ট্রালফিল্ড, মুরগি চত্বর, মুরাদে, ট্রান্সপোর্ট, পিঠাচত্বর, পুরাতন কলা, বটতলা,বোটানিক্যাল গার্ডেন, সুইমিংপুল, সুইজারল্যান্ড, বৃন্দাবন, স্ট্যাট চিপা, ঢাকা আরিচা মহাসড়ক সহ জাহাঙ্গীরনগরের সর্বত্র এর প্রতিবাদ চলবে।

জয় আমাদের হবেই!’

ইভেন্ট-এ অনেকে আগ্রহ প্রকাশ করলেও ফেসবুক পেজ-এ অনেকে নেতিবাচক কমেন্টও করেছে। তবে এমন নেতিবাচকতার বিরুদ্ধে লড়ার জন্য ভালোবাসাই সবচেয়ে বড় শক্তি বলে উদ্যেক্তাদের একজন বিডিটাইমসকে জানিয়েছে।

ইভেন্টটির লিংক-https://www.facebook.com/events/164332710611646/

এদিকে, ‘ভালোবাসা দিবসে পুলিশি পাহারায় প্রকাশ্যে চুমু খাব’ এই ইভেন্টের জনক জার্মানিতে নির্বাসিত বাংলাদেশি অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট শাম্মী হককে সুদূর জার্মানীতে গিয়ে ধর্ষণের হুমকি দিয়েছেন এক ব্যাক্তি। এ সম্পর্কীত আমাদের আরো একটি প্রতিবেদন পড়ুন এই লিংকে-

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/মাঝি

উপরে