আপডেট : ২৭ মার্চ, ২০১৬ ১৫:৫৬

চামড়ার পণ্য নতুন রাখার কৌশল

ফ্যাশন
চামড়ার পণ্য নতুন রাখার কৌশল

অনেক শখ করেই কিনেছেন চামড়ার ব্যাগটি। কিন্তু সঠিক যত্নের অভাবে প্রিয় ব্যাগটি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে! আদ্র আবহাওয়ায় চামড়ার পণ্য কীভাবে বছরের পর বছর  নতুনের মতো রাখতে পারবেন তারই পরামর্শ আজ দেয়ার চেষ্টা করলাম।  ভিজে যাওয়া যে কোনো চামড়ার পণ্যের যত্ন নিতে প্রথমেই শুকানোর ব্যবস্থা করতে হবে। চামড়ার জুতা ভিজে গেলে প্রথমে শুকনা কাপড় দিয়ে মুছে রোদে শুকাতে হবে। আর যদি কয়েকদিন রোদ না উঠে তবে চুলার আগুনের ভাপে শুকানোর ব্যবস্থা করতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে আগুনের তাপ জুতায় যেন সরাসরি না পড়ে। বেশি তাপ চামড়ার পণ্যের জন্য ক্ষতিকর। এতে চামড়া শক্ত হয়ে যায়। আর একবার শক্ত হয়ে গেলে সেটা আর ঠিক হয় না।

ভেজা আবহাওয়ায় চামড়ার পণ্যের যত্ন নিয়ে আরও কয়েকটি পরামর্শ-

১. ভেজা জুতা থেকে পানি সরানোর জন্য নিউজপ্রিন্ট কাগজ, জুতার ভেতর ও বাইরে দিয়ে কিছুক্ষণ মুড়িয়ে রাখুন। নিউজ প্রিন্ট পানি শুষে নিবে। এছাড়া শুকনা কাপড় দিয়েও ভালোমতো পানি মুছে নিতে পারেন।

২.  পানি ঝরানো জুতা না শুকানো পর্যন্ত ব্যবহার করবেন না। রোদে জুতা শুকান। কয়েকদিন রোদ না উঠলে চুলার আগুনের ভাপে জুতা শুকানো যেতে পারে।

৩.  শুকানোর পর জুতায় অবশ্যই ভালো কালি ও ক্রিম ব্যবহার করুন।

৪.  জুতা যদি বারবার ভিজে তাহলে একমাসের মধ্যে চামড়ায় পচন ধরার সম্ভাবনা থাকে। তাই ভেজা মৌসুমে চামড়ার জুতা না পরাই ভালো।

৫. চামড়ার ব্যাগ যদি ভিজে যায়, তাহলে শুকনা কাপড় দিয়ে পানি মুছে নিন। তারপর পাখার বাতাসে শুকান। এরপর যে কোনো তেল (নারিকেল বা অলিভ অয়েল) হালকা করে ব্যগে মাখুন। আমরা ট্যানারির ব্যবসায়ীরা এক্ষেত্রে সাধারণত নারিকেল তেল ব্যবহার করে থাকি। বেল্টের ক্ষেত্রেও একই পদ্ধতি ফলানো যায়।

৬. তেল ছাড়াও একধরনের কেমিক্যাল পাওয়া যায়। আমরা হাজারিবাগের লোকজন একে ‘ইয়াম’ বলি। এই কেমিক্যাল হালকা করে যে কোনো চামড়ার পণ্যের উপর ঘষলে সেটা চকচকে হয়। আবার বেশি জোড়ে ঘষলে রং উঠে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তবে এই ইয়াম চামড়ার পণ্যে এক দুই মাস অন্তর ব্যবহার করলে চামড়ার জুতা, ব্যাগ, বেল্ট ভালো থাকে। সাধারণত কেজি দরে বিক্রি হয় এই কেমিক্যাল। মান ভেদে সাদা রংয়ের এই তরলের দাম কেজি প্রতি সাড়ে ৪শ’ থেকে সাড়ে ৮শ’ টাকা। তবে নরম চামড়াজাত পণ্যে ইয়াম ব্যবহার না করাই ভালো।

৭. অনেকদিন রেখে দিলে চামড়ার জিনিসের উপর একধরনের সাদা প্রলেপ পড়ে। যাকে ফাঙ্গাসও বলা হয়। এটা উঠানোর জন্য ভেজা কাপড় দিয়ে মুছে ভালোমতো শুকিয়ে চামড়ার পণ্যে হালকা তেল পালিশ করুন।

৮. চামড়ার ব্যাগ, জুতা বা বেল্ট বেকায়দায় থাকলে ভাজ হয়ে দাগ পড়ে যায়। সেটা উঠানোর জন্য প্রথমে ভাজ হওয়া জায়গা সমান করে ধরে এর উপর পানি ঝরানো মোটা ভেজা কাপড় দিন। তারপর ভেজা কাপড়ের উপর দিয়ে মোটামুটি তাপে ইস্ত্রি করুন। মনে রাখবেন ভেজা কাপড় শুকিয়ে গেলেই আবার ভিজিয়ে ইস্ত্রি করতে হবে। কোনো মতেই যেন ইস্ত্রির তাপ সরাসরি চামড়ার পণ্যে না লাগে। রেক্সিনের পণ্যে আবার এই পদ্ধতি ফলাতে গেলে, জিনিসটাই নষ্ট হয়ে যাবে।

৯. চামড়ার যেকোনো পণ্য এসির ভিতর খুব ভালো থাকে। সবার বাসায়তো এসি নেই, তাই যতটা সম্ভব ঠাণ্ডা জায়গায় রাখার চেষ্টা করুন চামড়ার ব্যাগ, জুতা বা বেল্ট।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এএ 

উপরে