আপডেট : ২০ মার্চ, ২০১৬ ২০:০২

১০ বছরেই বিশ্ব সুন্দরী পিমেনোভাকে নিয়ে মেতেছে দুনিয়া!

বিডিটাইমস ডেস্ক
১০ বছরেই বিশ্ব সুন্দরী পিমেনোভাকে নিয়ে মেতেছে দুনিয়া!

দেখতে ফুটফুটে এক পরির মতো সে। যে দেখে, সেই আদর করতে চায়। মাত্র দশ বছর বয়সেই বিশ্ব জোড়া খ্যাতি তার। রীতিমত নাকি ঈর্ষায় জ্বলেন বড় বড় তারকারাও । এই বয়সেই সুপার মডেল হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করে ফেলেছেন ঐ শিশু। নাম ক্রিস্টিনা প্রিমেনোভা। শুধু কি তাই এরই মধ্যে বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দরী বালিকার তকমাও পেয়েছে সে।

তবে রাশিয়ান বংশদ্ভূত এই শিশু মডেল কিন্তু শুধু এখন নয়, অবাক হবেন যখন জানবেন তার যাত্রাটা শুরু হয়েছিলো মাত্র তিন বছর বয়স থেকেই। ২০০৫ সালে জন্মগ্রহণকারী এ বালিকা মডেলিং জগতে আসে মাত্র তিন বছর বয়সে। আর এখন এ সবুজনয়না সুপার মডেল। সেই বয়সেই বিভিন্ন পন্যের বিজ্ঞাপনে মডেলিংয়ে কাজ শুরু করেই হাতেখড়ি ।

এরই মধ্যে ক্রিস্টিনা আরমানি, ফেন্দি এবং রবার্তো কাভাল্লিন মতো বিশ্বখ্যাত ডিজাইনারদের শিশুদের পোশাকের মডেল হয়েছে। ভোগ ম্যাগাজিনের শিশু সংস্করণ ‘ভোগ ব্যাম্বিনি’র কভার গার্ল হয়েছে সে।

ইন্টারনেটের কল্যাণে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে তার অগনিত ভক্তের ছড়াছড়ি। প্রতিদিনই তার প্রশংসা উপচে পড়ছে তাতে। এমনকি এ বয়সেই বিয়ের প্রস্তাবও পাচ্ছে সে! কিন্তু তার কাজ বা ট্যালেন্টের চেয়ে দৈহিক সৌন্দর্য গুরুত্ব পাচ্ছে বেশি। কেউ তার দীর্ঘ পায়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

জনপ্রিয় সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকেও দারুন হিট এই বালিকার প্রায় ৬০ লাখ ফলোয়ার । আর ইন্সট্রাগ্রামে রয়েছে ৪১ লাখ অনুসারী। পণ্যের বিজ্ঞাপনে শিশুদের হাজির করাটা নতুন কিছু নয়। মডেলিং জগতেও এর আগে অনেক বালিকা কাজ করেছে।

এদিকে, মেয়েকে নিয়ে ভক্তদের বাড়াবাড়িতে রীতিমতো তেলে-বেগুনে জ্বলে ওঠেন ক্রিস্টিনার মা গ্গ্নিকেরিয়া শিরোকোভা। যিনি নিজেও একজন মডেল। অনলাইনের বিষয়টি তিনিই দেখাশোনা করেন বলেই হয়তো এসব তার নজরে এসেছে। মেয়েকে কোনো যৌন উত্তেজক পোশাকের মডেল করেননি বলেই তার দাবি। যারা ক্রিস্টিনার মতো ছোট্ট মেয়ের ছবিতেও যৌনতা খোঁজে তাদের মানসিক ভারসাম্যহীন বলতেও ছাড়েননি তিনি।

তবে ইন্সট্রাগ্রামে অনেকেই মন্তব্য করেন এমন বাবা-মায়ের জন্যই মেয়েরা বখে যায়। ব্যক্তিগত লাভের জন্য কমবয়সী মেয়েকে খোলামেলাভাবে উপস্থাপনেরও সমালোচনা করেন অনেকে। অবশ্য এসব অভিযোগ মোটেও আমলে নিচ্ছেন না শিরোকোভা।

তবে শুধু খ্যাতিই নয় শিশু বয়সেই এমন মডেল বনে যাওয়ায় অবশ্য তাকে সমালোচিত হতে হয়েছে। সম্প্রতি স্যোসাল মিডিয়ায় ক্রিস্টিনার কিছু পোস্ট করা হয়েছে। ছবি দেখে অনেক বাবা-মা ক্রিস্টিনার সমালোচনা করে বলেছেন, এ ধরনের ছবি ‘উত্তেজক’ ও অনুপযুক্ত।

ফেসবুকে পোস্ট করা ক্রিস্টিনার অনেক ছবিতে ভক্তরা বাজে মন্তব্য করেছে। সম্প্রতি ইন্সটাগ্রাম করা একটি ছবিতে এজকন মন্তব্য করেছে- ‘তুমি কি আমার সাথে থাকতে চাও? অন্যজন বলেছে- ‘সেক্সি লেগ’।

তবে ক্রিস্টিনার মায়ের দাবি, স্যোসাল মিডিয়িায় মেয়ের ছবি নিয়ে যে ধরনের বাজে মন্তব্য করা হচ্ছে তাতে তিনি মোটেও চিন্তিত নন। ছবিতে খারাপ কিছু নেই বলে মনে করেন ৪০ বছর বয়সী গ্লিকেরিয়া।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে