আপডেট : ২৪ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৬:২৩

পোশাক অনুযায়ী নির্বাচন করুন পছন্দের প্যান্টি

বিডিটাইমস ডেস্ক
পোশাক অনুযায়ী নির্বাচন করুন পছন্দের প্যান্টি

নারীর অন্তর্বাস, নারীত্ব এবং নাজুক শরীর যেখানে গোপন রাখার এক সামাজিক প্রথা। বর্তমানে হালের ফ্যাশন হয়ে দাঁড়িয়েছে নারীদের প্যান্টি ব্যবহার। বিশেষ এই পোশাকটি ছোট হলেও, নারীদের কাছে এটি অত্যন্ত উপকারী ও প্রয়োজনীয় বিষয়৷ কিন্তু, এটি ব্যবহারের ক্ষেত্রে অবশ্যই কিছু সচেতনতা প্রয়োজন৷ ঠিকঠাক পোশাকের নীচে উপযুক্ত ডিজাইনের প্যান্টি না পরলে খারাপ দেখতে লাগে তো বটেই পাশাপাশি হতে পারে রোগ-ব্যাধিও।

বয় শর্টস: বয় শর্ট হচ্ছে ছোট পেন্ট যা হিপ কে ফুল কাভারেজ দেয়, যা প্রতিদিন আরামের সাথে পরা যায়। নাভির নিচ থেকে শুরু হয়ে বয় শর্টস পেন্টি পায়ের অনেক অংশ ঢেকে রাখে যা স্কার্টের সাথে পরার জন্য উপযোগী।যারা থং বা জি-স্ট্রিং পরতে অস্বস্তি বোধ করেন তাঁরা বডি-ফিটিং ড্রেস বা কুর্তির তলায় এই ধরনে‌র প্যান্টি পরলে পোশাকের উপর থেকে বোঝা যাবে না। বিভিন্ন ধরনের ফেব্রিকের বয় শর্টস পাওয়া যায়। সাধারণ কটন থেকে সাটিন, লেস, সবই পাবেন।

ব্রিফ: কোমর থেকে নিতম্ব, সম্পূর্ণ ঢেকে রাখে গ্র্যানি প্যান্টি। সারাদিন পরে থাকার পক্ষে খুব ভাল। এই ধরনের প্যান্টি কিনলে পিমা কটন, বা লাইক্রার কেনাই ভাল। দেখতে টামি টাকার-এর মতো হলেও এটা কিন্তু আসলে তা নয়। ব্রিফ আর বয়শর্টস, দুই-ই জগিং বা এক্সারসাইজ করার সময় পরলে ভাল। তবে যদি বডি-ফিটিং স্পোর্টসওয়্যার পরেন, তবে তার নীচে পরতে হবে সিমলেস প্যান্টি না-হলে পোশাকের উপর থেকে চোখে পড়বে প্যান্টিলাইন।

বিকিনি: বিকিনি প্যান্টির বিশেষত্ব হল এর প্যান্টিলাইন বেশ সরু। এখন লো-ওয়েস্ট জিন্‌স পরার চল খুব বেশি। তেমন কিছু পরলে বিকিনি প্যান্টি পরাই ভাল। জিন্‌সের ওয়েস্টলাইন থেকে প্যান্টির বর্ডার উঁকি মারা কিন্তু মোটেই ভাল নয়।

হিপস্টার: এটি মিডিয়াম কাভারেজ পেন্টি, লো রাইজ এবং লেংথ ছোটো। হিপস্টার ব্রিফ একটি মডার্ন স্টাইল,ক্লাসিক ও আরামদায়ক। বয় শর্ট ব্রিফ এর চেয়ে ফ্যাব্রিক কিছুটা পাতলা হয় এবং যে কোনো লো কাট জিন্স এর সাথে পরা যায়। হিপস্টার ব্রিফ নাভির ৬-৭ ইঞ্চি নিচে পরতে হয় যা শাড়ির জন্য উপযোগী। বিকিনি প্যান্টির থেকে বেশি চওড়া প্যান্টিলাইন এবং এ-ও নিতম্ব সম্পূর্ণ ঢেকে রাখে।

চিকিজ: বিকিনি বা হিপস্টারে লেস ফ্রিঞ্জ থাকলে তাকে বলে চিকিজ। মূলত ‘ভিক্টোরিয়াস সিক্রেট’-এর একটি বিশেষ প্রোডাক্ট রেঞ্জ থেকে জনপ্রিয় হয়েছে এই নামটি।

সিমলেসঃ সিমলেস প্যান্টি হল সেইগুলি যেখানে প্যান্টির বর্ডার এমনভাবেই বানানো যাতে পোশাকের উপর থেকে চোখে না-পড়ে। লেগিংসের সঙ্গে বডি-হাগিং টপ বা কুর্তি পরলে ভিতরে পড়ুন এই প্যান্টি। ককটেল ড্রেস, ফর্মাল ট্রাউজার বা জিম ড্রেস-এর ক্ষেত্রেও তাই। বিকিনি, হিপস্টার বা গ্র্যানি প্যান্টি, সব কিছুরই সিমলেস ডিজাইন পাওয়া যায়।

থং: থং এর পিছন সাইড খুবই সরু থাকে এবং ভি শেইপের হয়। পিছনের দিকে কাপড় যত নিচের দিকে নামতে থাকে ততো চিকন হয়ে ভি শেইপ টি সরু ফিতায় পরিণত হয়। ওয়েস্ট ব্যান্ড চিকন হয়। এই ধরনের প্যান্টি পরার চল বেশি বিদেশে। প্যান্টিলাইন যাতে পোশাকের উপর থেকে বোঝা না যায়, তার জন্যই এমন ডিজাইন। তবে এক্সারসাইজ বা খেলাধূলা করার সময় কখনোই এই প্যান্টি নয়, আহত হতে পারে গোপনাঙ্গ, ইনফেকশনও ছড়াতে পারে।

জি-স্ট্রিং: থং-এর চেয়েও মিনিমাল যদি কিছু হয়, তবে তা হল জি-স্ট্রিং। সারাদিন পরে থাকার পক্ষে একেবারেই আরামদায়ক নয় আর কখনোই পরা উচিত নয় জিম বা এক্সারসাইজ করার সময়। তবে ব্যক্তিগত সময়ে, সঙ্গীর দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য আদর্শ। 

ব্রাইডাল: বিয়ের প্রথম রাত স্মরণীয় করে রাখতে বাজারে রয়েছে অসংখ্য ব্রাইডাল প্যান্টি। ফেব্রিক থেকে ডিজাইন, নানা রকম এক্সপেরিমেন্ট করা হয়। সচরাচর এগুলি লেস বা স্বচ্ছ ‘তুলে’ ফেব্রিক দিয়ে তৈরি। আকর্ষণীয় করতে দেওয়া হয় বো অথবা সেনস্যুয়াল ফ্রিল।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে