আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৭:০২

এমপিওভুক্তির সভা আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর

অনলাইন ডেস্ক
এমপিওভুক্তির সভা আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর

বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের চলতি মাসের এমপিওভুক্তির সভা আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

অনুষ্ঠিতব্য সভায় এমপিওর আওতাভুক্ত শূন্যপদে কর্মরত ইনডেক্সবিহীন শিক্ষকদের এমপিওভুক্তি, টাইমস্কেল ও সিলেকশন গ্রেড, বিএড-কামিল স্কেল, সহকারী লাইব্রেরিয়ান পদের এমপিওসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হবে।

এমপিওভুক্তির সভায় সভাপতিত্ব করবেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক মো. মাহাবুবুর রহমান।

এমপিওভুক্তির জন্য আবেদন জমা পড়েছিল ৬ হাজার ১৪১ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে বাছাই করে ১ হাজার ৫৩৭ প্রতিষ্ঠানকে এমপিও নীতিমালার আলোকে যোগ্য বলে চিহ্নিত করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের গঠিত কমিটি। তবে এই এমপিভুক্তি পর্যায়ক্রমে দেয়া হতে পারে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (মাধ্যমিক) জাবেদ আহমেদ বলেন, ‘আমরা একটি প্রাথমিক তালিকা তৈরি করেছি। সবাই বসে তা দেখার সময় কিছু পরিবর্তনও আসতে পারে। তবে তালিকার চূড়ান্ত অনুমোদন দেবেন শিক্ষামন্ত্রী।’ তিনি জানান, এমপিওভুক্তির জন্য ১০০ নম্বর রাখা হয়েছিল। একাডেমিক স্বীকৃতি, শিক্ষার্থীর সংখ্যা, পরীক্ষার্থী ও উত্তীর্ণের সংখ্যার ওপর ভিত্তি করে নম্বর দিয়ে উত্তীর্ণদের বাছাই করা হয়েছে।

তথ্যমতে, এক হাজার ৯৬৭ নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় আবেদন করেছিল, তাদের মধ্যে যোগ্য ৫৭৯ স্কুল। দুই হাজার ৭৩৯টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আবেদনের মধ্যে ৭৬৪টি প্রতিষ্ঠানকে যোগ্য বিবেচনা করা হচ্ছে। উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে এমপিওভুক্তির যোগ্য ১২১টি কলেজ। এর মধ্যে স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং কলেজ দুই স্তরের প্রতিষ্ঠানই রয়েছে। ৫৫৪টি ডিগ্রি কলেজ এমপিওভুক্তির আবেদন করেছিল, এর মধ্যে যোগ্য ৪৩ কলেজ।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে