আপডেট : ২২ আগস্ট, ২০১৭ ২১:১৪

‘শিক্ষক মূল্যায়নেও ব্যবস্থা থাকা প্রয়োজন’

অনলাইন ডেস্ক
‘শিক্ষক মূল্যায়নেও ব্যবস্থা থাকা প্রয়োজন’

গুণগত মানসম্পন্ন শিক্ষার জন্য ভাল মানের শিক্ষক প্রয়োজন। তাই শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি শিক্ষকদেরও মূল্যায়নের ব্যবস্থা থাকা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। ২২ আগস্ট মঙ্গলবার রাজধানীর বিশ্ব বিসাহিত্য কেন্দ্র মিলনায়তনে মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের শিখনমান মূল্যায়নে নতুন কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

দেশের মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য জাতীয়ভিত্তিক লার্নিং অ্যাসেসমেন্ট অব সেকেন্ডারি ইনস্টিটিউশনস-২০১৭ শীর্ষক এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন মন্ত্রী। এর আওতায় জাতীয় পর্যায়ে ষষ্ঠ, অষ্টম ও দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের শিখনমান মূল্যায়নের লক্ষ্যে লাসি-২০১৭ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে চলতি বছর ৬৪টি জেলার ৮০টি উপজেলার প্রায় ৯০০টি মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৮১ হাজার শিক্ষার্থীর বাংলা, ইংরেজি ও গণিত বিষয়ের শিখনমান মূল্যায়ন করা হবে।

লার্নিং অ্যাসেসমেন্টের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হচ্ছে কারিকুলাম অনুযায়ী শিক্ষার্থীদের বিষয়ভিত্তিক শিখন যোগ্যতা পরিমাপ করা, এর ফলাফল বিশ্লেষণের মাধ্যমে শিক্ষার্থী ও শিক্ষা ব্যবস্থার দুর্বল দিকগুলো চিহ্নিত করা, শিক্ষার্থীদের আঞ্চলিক ও এলাকাগত বৈষম্য পরিমাপ করা এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ধরন ও আন্তঃবিদ্যালয় বৈষম্য পরিমাপ করা। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা শিক্ষা ব্যবস্থার বড় ধরনের পরিবর্তন চাই। এ খাতের ব্যাপক উন্নতি ও গুণগতমান বৃদ্ধি করতে চাই। এজন্য এ ধরনের মূল্যায়ন গুরুত্বপূর্ণ।

তিনি বলেন, গুণগত মানসম্পন্ন শিক্ষার জন্য ভাল মানের শিক্ষক প্রয়োজন। তাই শিক্ষার্থীদের মুল্যায়নের পাশাপাশি শিক্ষকদেরও মূল্যায়নের ব্যবস্থা থাকা প্রয়োজন। শিক্ষকদের মান বৃদ্ধি এবং এ বিষয়ে সঠিক নীতি গ্রহণের জন্য শিক্ষকদের মূল্যায়নের বিষয়টি যুক্ত করা প্রয়োজন। শিক্ষার মান বৃদ্ধির জন্য অভিভাবকদেরও সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

মন্ত্রী আরও বলেন, শিক্ষার মান বৃদ্ধি সারা পৃথিবীতেই এখন আলোচিত বিষয়। এটা শুধু বাংলাদেশের সমস্যা নয়। এজন্য জাতিসংঘ এসডিজি-৪ গ্রহণ করেছে। মাধ্যমিক এবং উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. এস এম ওয়াহিদুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. মহিউদ্দিন খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে