আপডেট : ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬ ১৪:৫২

কলেজে তালা দিলেন আ.লীগ নেতা

অনলাইন ডেস্ক
কলেজে তালা দিলেন আ.লীগ নেতা

অধ্যক্ষ নিয়োগ নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কুড়িপাড়া কলেজে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা। এ কারণে কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম ও এইচএসসি টেস্ট পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে। ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার সকালে কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা প্রতিবাদ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে।

জানা যায়, কুড়িপাড়া কলেজের অধ্যক্ষ নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে কলেজ কর্তৃপক্ষ। গত ২০ নভেম্বর অধ্যক্ষের নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু স্থানীয় রতনকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তাদির হোসেন বকুল তার পছন্দনীয় প্রার্থী মো. কামরুজ্জামানকে নিয়োগ দেয়ার জন্য কলেজ কর্তৃপক্ষকে চাপ সৃষ্টি করে।

কলেজ কর্তৃপক্ষ স্বচ্ছতা ও মেধার ভিত্তিতে অধ্যক্ষের নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিলে আওয়ামী লীগের নেতারা ক্ষুব্ধ হন। এ কারণে নিয়োগ পরীক্ষাটি স্থগিত ঘোষণা করে কলেজ কর্তৃপক্ষ। নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করার জের ধরে আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তাদির হোসেন বকুল স্থানীয় ছাত্রলীগ, যুবলীগ নেতাকর্মীদের নিয়ে গত ২১ নভেম্বর কলেজে এইচএসসি টেস্ট পরীক্ষা চলাকালে শিক্ষার্থীদের বের করে দিয়ে কলেজের অধ্যক্ষ ও অফিস কক্ষে তালা ঝুলিয়ে দেয়।

একপর্যায়ে গত ২৬ নভেম্বর কলেজের প্রতিটি কক্ষে তালা ঝুলিয়ে দিলে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। এ ঘটনায় ছাত্রছাত্রী, অভিভাবক ও এলাকাজুড়ে ক্ষোভ বিরাজ করছে। কলেজ খুলে দেয়ার দাবিতে শনিবার সকালে কলেজ চত্বরে প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন করেছে ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকেরা।

এ ব্যাপারে কুড়িপাড়া কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ রবিউল করিম বলেন, মেধার ভিত্তিতেই অধ্যক্ষ নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেয় কলেজ কর্তৃপক্ষ। কিন্তু স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তাদির হোসেন বকুল ও রতনকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা খোকন তাদের পছন্দনীয় প্রার্থী কামরুজ্জামানকে নিয়োগ দেয়ার জন্য বার বার চাপ সৃষ্টি করে। এ কারণেই নিয়োগ পরীক্ষাটি স্থগিত রাখা হয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে তারা কলেজে তালা ঝুলিয়ে দেয়। এতে গত ২১ নভেম্বর থেকে কলেজে পাঠদান ও এইচএসসির টেস্ট পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে। বিষয়টি কলেজের পক্ষ থেকে উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে অবগত করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে রতনকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তাদির হোসেন বকুল বলেন, ২০ নভেম্বর নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করায় এলাকার লোকজন ক্ষুব্ধ হয়েছে। বিষয়টি সাবেক সংসদ সদস্য তানভীর শাকিল জয় অবগত রয়েছেন। ক্ষুব্ধ লোকজন কলেজে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে। তবে আমি এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলাম। এ বিষয়ে সাবেক সাংসদের সঙ্গে কথা বলে দুই একদিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

সিরাজগঞ্জ জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শফীউল­াহ বলেন, কলেজ বন্ধ ও কলেজ খুলে দেয়ার দাবিতে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করেছে বিষয়টি আমি জানতে পেরেছি। আজ অফিস বন্ধ থাকায় কোনো ব্যবস্থা নেয়া যাচ্ছে না। আগামীকাল রোববার এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে