আপডেট : ২৩ মার্চ, ২০১৬ ১৪:৩৭

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়ন দাবি প্রধান শিক্ষকদের

বিডিটাইমস ডেস্ক
প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়ন দাবি প্রধান শিক্ষকদের

প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের দ্বিতীয় শ্রেণির গেজেটেড পদমর্যাদা বাস্তবায়ন ও জাতীয় বেতন স্কেলের দশম গ্রেড অন্তর্ভূক্ত করার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতি।

বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ৫ দফা দাবি জানান তারা।

দাবির মধ্যে আরো রয়েছে, প্রধান শিক্ষকদেরকে সেলফ ড্রয়িং কর্মকর্তা হিসেবে ক্ষমতা প্রদান ও করেসস্পন্ডিং স্কেলে বেতন ফিক্সেশনের জন্য অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে সুস্পষ্ট নির্দেশনা জারী করা। নতুন নিয়োগবিধি প্রণয়ন করে প্রধান শিক্ষক থেকে উপরের পদসমূহে শতভাগ বিভাগীয় পদোন্নতির বিধান চালু করা। প্রধান শিক্ষক পদে নতুন নিয়োগ ও পদোন্নতি পিএসসি’র আওতাভুক্ত রাখা। জাতীয় বেতন স্কেলে সিলেকশন গ্রেড ও টাইম স্কেল পুর্নবহাল করা।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, গত বছরের ৯ মার্চ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এক যুগান্তকারী ঘোষণার মাধ্যমে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের দ্বিতীয় শ্রেণির গেজেটেড কর্মকর্তার পদমর্যাদায় উন্নীত করেন। একই দিনে পদমর্যাদা উন্নীতের আদেশ জারী করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। এর পর গত দেড় বছরেও পদমর্যাদা ও পদমর্যাদা অনুযায়ী দশম গ্রেড বাস্তবায়ন হয়নি।

প্রধান শিক্ষকরা অভিযোগ করেন, পদমর্যাদা  ও  দশম  গ্রেড  বাস্তবায়নে গড়িমসি করছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয় প্রধান শিক্ষকদেরকে সেলফ ড্রয়িং কর্মকর্তা হিসেবে ঘোষণা না করায় এবং পদমর্যাদা অনুযায়ী জাতীয় বেতন স্কেলের ১০ম গ্রেডে অন্তর্ভুক্ত করে প্রধান শিক্ষকদের নাম উল্লেখ করে গেজেট প্রকাশ না করায় পদমর্যাদা বাস্তবায়িত হচ্ছে না।

ফলে প্রধান শিক্ষকগণ সেলফ ড্রয়িং হিসেবে গেজেটেড সরকারি কর্মকর্তার বেতন বিলের মাধ্যমে বেতন তুলতে পারছেন না। তা ছাড়া ১ম/২য়/৩য় টাইম-স্কেলপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকদের করেসপন্ডিং স্কেলে বেতন নির্ধারণের জটিলতা নিরসন না হওয়ায় বেতন ফিক্সেশন করতে পারছে না হিসাবরক্ষণ অফিস।

সংবাদ সম্মেলনে আগামী ২০ এপ্রিলের দাবি বাস্তবায়নে বেতন বৈষম্য দূরীকরণ সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি ও প্রধানমন্ত্রীর জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন তারা।

এর মধ্যে দাবিগুলো বাস্তবায়ন না হলে ২১ এপ্রিল দেশের সকল জেলায় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি পেশ করা হবে বলেও জানান তারা।

সংগঠনের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক রিয়াজ পারভেজের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র আহ্বায়ক নজরুল ইসলাম, যুগ্ম আহ্বায়ক পারভিন আক্তার, নূর আহমেদ, কেন্দ্রীয় নীতি -নির্ধারণী কমিটির আহবায়ক আলাউদ্দিন মোল্লা, যুগ্ম আহ্বায়ক খায়রুল ইসলাম, মিজানুর রহমান মিজান, খয়বর আলী, সিলেট বিভাগীয় আহবায়ক আবুল হোসেন, খুলনা বিভাগীয় আহবায়ক স্বরূপ কুমার দাস, বরিশাল বিভাগীয় আহবায়ক আবু বকর সিদ্দিক লাভলু, যুগ্ম আহবায়ক কাইছারুল আলম কাইছার, রঞ্জিত ভট্টাচার্য, সরদার আসাদুজ্জামান প্রমুখ।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে