আপডেট : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৫:৫৮

৬০জন শিক্ষার্থীকে ২ রুম বরাদ্দ দিলো জাবি ছাত্রলীগ

নবিউল ইসলাম বাপ্পি, জাবি প্রতিনিধি
৬০জন শিক্ষার্থীকে ২ রুম বরাদ্দ দিলো জাবি ছাত্রলীগ

ছাত্রলীগের মিছিলে যায়নি সাধারণ শিক্ষার্থীরা।তাই শাস্তি হিসেবে ৬০ শিক্ষার্থীকে ২ রুম বরাদ্দ দিলো জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ। মওলানা ভাসানী হলের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা এ শাস্তির মুখোমুখি হয়।

জানা যায়, প্রথম বর্ষের প্রায় ৬০জন শিক্ষার্থীদের জন্য হলের ১১০, ১১২, ১১৩, ১১৪ এবং ১২০ নং রুমে থাকার ব্যবস্থা করা হয়। কিন্তু বুধবার ছাত্রলীগের বিজয় মিছিলে না যাওয়া এবং নিয়মিত গেস্টরুমে অনুপস্থিত থাকার জন্য ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নির্দেশে অনুপস্থিত শিক্ষার্থীদের মালামাল, কাপড়, ট্রাং বাইরে ফেলে দেয়। পরে উপস্থিত সকলকে ১১০ এবং ১২০ নং কক্ষে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়। ফলে ৪ জনার রুমে ২০-২৫ জন শিক্ষার্থীদের থাকতে হচ্ছে।

শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় শিক্ষার্থীদের  ট্রাং, জিনিসপত্র, কাপড়ের স্তুপ বাইরে পরে আছে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সাংবাদিক পরিচয় দিলে মুহূর্তের মধ্যে তাদের জিনিসপত্র রুমে ঢোকানো হয়।

এ বিষয়ে তাৎক্ষনাত ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মীর কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন, গরম বেশি হওয়ার কারণে তাদের জিনিসপত্রগুলো বাহিরে রাখা হয়েছিল।

নাম প্রকাশ অনিচ্ছুক এক শিক্ষার্থী বলেন, সামনে বিভাগের ফাইনাল পরীক্ষা। এমনিতেই হলে নানা সংকটের কারণে পড়াশুনা করা সম্ভব হচ্ছে না। তারমধ্যে বড়ভাইদের এমন শাস্তি আসলে অমানবিক।

জাবি শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুরশিদুর রহমান আকন্দ বলেন, হলে ৩ টি কক্ষ বন্ধ করে দেওয়া হয়নি। ১২ মার্চ ৪৫ তম আবর্তনের শিক্ষার্থীরা হলে উঠবে বলে তাদের জন্য একটি মাত্র কক্ষ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

মওলানা ভাসানী হলের প্রভোস্ট সৈয়দ হাফিজুর রহমান বলেন, আমি সন্ধ্যায় খোঁজ-খবর নেওয়ার জন্য লোক পাঠিয়েছিলাম। তারা গিয়ে কক্ষগুলো খোলা দেখতে পেয়েছে। শুনেছি, প্রথমবর্ষের শিক্ষার্থীদের দোতলায় উঠানো হবে বলে কক্ষগুলো খালি করা হয়েছিল।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে