আপডেট : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৭:৪৯

শিশুদের নিয়ে ভালবাসা দিবস পালন করবে চবির ক্যাকটাস

রবি হোসাইন অর্ক, চবি প্রতিনিধি
শিশুদের নিয়ে ভালবাসা দিবস পালন করবে চবির ক্যাকটাস

এই ভালবাসা দিবসে বসন্তের রঙ এসেছে প্রকৃতিতে। প্রিয়জনকে নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটবে সবার। ভালবাসা দিবস উদযাপনে ভিন্নতা নিয়ে এসেছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ভিত্তিক সামাজিক সংগঠন ক্যাকটাসের একদল তরুণ। যারা বসন্তের রঙ ছড়িয়ে দিতে চান সবার মাঝে।

সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সাথে কাটুক আমার আপনার ভালবাসা দিবস এই শ্লোগানে তারা ভালবাসা দিবস উদযাপন করবে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সাথে। কালকের একটি দিন অন্তত হাসি ফুটুক অবহেলিত শিশুর ঠোঁটে এই চাওয়া থেকেই ব্যতিক্রমী এই আয়োজন।

আগামীকাল রবিবার চবিতে সারাদিন আনন্দে মেতে উঠবে শিশুরা। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা এবং বাইরে থেকওে শিশুদের আসবে। সকাল ১০ টায় কেক কেটে উদ্ভোধন করার পর শুরু হবে শিশুদের সাথে আনন্দ র‍্যালী। এরপর আছে খেলাধুলা। শিশুদের জন্যে দুপুরে রয়েছে খাবারের আয়োজন। বিকেলে শিশুদের নিয়েই থাকছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং সবশেষে পুরস্কার বিতরণ।

ক্যকটাসের সদস্য কায়সার হামিদ আপন বিডিটাইমস৩৬৫ডটকমকে বলেন, অবহেলিত শিশুদের একটি আনন্দের দিন উপহার দিতে চাই আমরা। শুধু শিশু না তারা কাজ করতে চান মানুষের অধিকার আদায়ে। এই অবহেলিত শিশুদের সাথে একটি দিন কাটিয়েই থেমে যেতে চান না সে কথা ও বললেন।

"পরিস্কার থাকি,পরিস্কার রাখি আমাদের চারপাশ,পাশে আছি আমরা ক্যাকটাস" এ শ্লোগান নিয়ে ক্যাকটাস যাত্রা শুরু করেছে এই ফেব্রুয়ারীতে। এটি মূলত স্বেচ্ছাসেবী একটি সংগঠন।কিছু স্বপ্নবাজ তরুণ যারা বাংলাদেশকে বদলাতে চায়। যারা স্বপ্ন দেখ্নে সব শিশুর শৈশব কাটবে বইয়ের সাথে আর পরম আদরে।

ক্যাকটাসের নিয়মিত কার্যাবলির অংশ হিসেবে চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে পথ শিশুদের ভ্রাম্যমান পাঠদান করা হয় বিকাল ৪টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত।শিশুদের প্রজনন স্বাস্থ্য সহ বিভিন্ন বিষয়ে পড়ানো হয়। চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র এবং ছাত্রী হল গুলোতে কর্মরত ৯-১৮ বছর বয়সী সকল শিশু শ্রমিক কে পাঠদানের পাশাপাশি তাদের জীবনে মৌলিক অধিকার বিষয়ে সচেতন এবং জীবন দক্ষতা বৃদ্ধিকল্পে একটি কর্মসূচি হাতে নিয়েছে ক্যাকটাস।

যে পজিটিভ বাংলাদেশের স্বপ্ন বোনা হয়েছে সেটা একদিন সত্যি হবে এই বিশ্বাসকে সামনে রেখেই এগিয়ে যাচ্ছে ক্যাকটাস।

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে