আপডেট : ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৩:৪৭

সিলেটে ১৫ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

বিডিটাইমস ডেস্ক
সিলেটে ১৫ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী কাজী হাবিব (২৪) হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগে ১৫ শিক্ষার্থীকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জরুরি সিন্ডিকেট সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তরের পরিচালক তারেক উদ্দিন স্থায়ী বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, হত্যাকাণ্ডের পর গঠিত পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন অনুযায়ী সিন্ডিকেট সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের ১৫ জন শিক্ষার্থীকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়।

স্থায়ী বহিষ্কার হওয়া শিক্ষার্থীরা হলেন, আলাউর খান, ইলিয়াস আহমেদ, আনিসুর রহমান, মইনুল ইসলাম, আশিক উদ্দিন, আবদুল আওয়াল, বশির উদ্দিন আহমেদ, সুজন মিয়া, হারুন রশিদ, কাজী কামরুল আহমেদ, নয়ন রায়, সাইদুর রহমান, বিশ্বজিৎ দে ও সায়েদুর রহমান।

গত ২১ জানুয়ারি সিলেটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফর উপলক্ষে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের তৎপরতা শুরু হয়। তার জের ধরে দুদিন আগে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটকের সামনে এক পক্ষের হামলায় নিহত হন বিবিএ চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ কর্মী কাজী হাবিব। এ ঘটনায় তাঁর ভাই কাজী জাকির হোসেন বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় ১১ জনের নাম উল্লেখ করে হত্যা মামলা করেন।

২২ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় মামলার প্রধান আসামি হোসাইন মুহাম্মদ সাগরসহ ১০ জনকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়। শুক্রবার সিন্ডিকেটের বৈঠকে ওই ১০ জন ও নতুন করে আরো পাঁচজনসহ মোট ১৫ জনকে স্থায়ী বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন সূত্র জানায়, স্থায়ী বহিষ্কার হওয়াদের মধ্যে প্রথম ১১ জন কাজী হাবিব হত্যা মামলায় এজাহারভুক্ত আসামি। বাকি চারজন সন্দেহভাজন। ১৫ জনই ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত।

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে