আপডেট : ২০ জানুয়ারী, ২০১৬ ১১:২৫

বেসরকারি স্কুলে বেতন-ফি ২০% বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত

অনলাইন ডেস্ক
বেসরকারি স্কুলে বেতন-ফি ২০% বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত

রাজধানীর বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বেতনসহ অন্যান্য ফি বৃদ্ধির প্রমাণ পেয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে গঠিত অনুসন্ধান কমিটি। এই বৃদ্ধির হার ও কারণ পর্যালোচনা করে শিক্ষা মন্ত্রণালয় বেতন-ফি যৌক্তিক হারে বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এ ক্ষেত্রে তা ১৫ থেকে ২০ শতাংশ পর্যন্ত বাড়তে পারে। আগামী সপ্তাহে এ-সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

রাজধানীর বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অস্বাভাবিক হারে ভর্তি ফি ও শিক্ষার্থীদের বেতন বৃদ্ধির প্রতিবাদে অভিভাবকদের বিক্ষোভ এবং গণমাধ্যমে  অযৌক্তিক বেতন বৃদ্ধির খবর প্রকাশের পরিপ্রেক্ষিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় রবিবার এ নিয়ে বৈঠক করে।

ওই দিনই বর্ধিত বেতন-ফি আদায় বন্ধের নির্দেশ দিয়ে আদেশ জারি করা হয়।

একই সঙ্গে এ-সংক্রান্ত তথ্য মাঠপর্যায় থেকে সংগ্রহ এবং নতুন বেতন স্কেলের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ব্যয় বৃদ্ধির বিষয়টি পর্যালোচনা করে যৌক্তিক হারে ভর্তি ফি ও বেতন পুনর্নির্ধারণের সিদ্ধান্ত হয়।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) একটি দল রাজধানীর ছয়টি বিদ্যালয়ে সরেজমিনে গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করে।

এর মধ্যে রয়েছে ভিকারুননিসা, মতিঝিল আইডিয়াল, উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজ, বাংলাদেশ ব্যাংক স্কুল, মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরি ও মিরপুরের শহীদ স্মৃতি পুলিশ স্কুল।

অনুসন্ধান কমিটির একজন সদস্য জানান, সরেজমিনে গিয়ে বেতন ও ফি বৃদ্ধির প্রমাণ পাওয়া গেছে। কোনো কোনো প্রতিষ্ঠান শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নীতিমালা অনুসারে ভর্তি ফির বিষয়টি মানলেও সেশন ফি ও বেতনের ক্ষেত্রে নিয়ম ভঙ্গ করেছে।

যেমন উইলস লিটল ও ভিকারুননিসা ভর্তি ফির ক্ষেত্রে নীতিমালা অনুসরণ করলেও মাসিক বেতন ৫০-১০০% বৃদ্ধি করেছে। আবার আইডিয়াল স্কুল কেবল বেতন ১০০ টাকা বাড়িয়েছে।

তিনি জানান, সব প্রতিষ্ঠানই শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বর্ধিত বেতন-ফি আদায় বন্ধের নির্দেশ জারির পর বাড়তি টাকা আদায় স্থগিত করেছে। এ-সংক্রান্ত প্রতিবেদন আজকালের মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়া হবে বলে মাউশি সূত্রে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বর্তমানে ইংল্যান্ডে রয়েছেন। বুধবার রাতে তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে। তবে বৃহস্পতিবার থেকে আগামী সোমবার পর্যন্ত তার ঢাকার বাইরে কর্মসূচি রয়েছে। এরপর নতুন নির্দেশনা জারি হতে পারে বলে জানা গেছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডএম

উপরে