আপডেট : ১৪ আগস্ট, ২০১৮ ১১:৪০

এবারের ঈদে শাকিবের প্রতিদ্বন্দ্বী যারা

অনলাইন ডেস্ক
এবারের ঈদে শাকিবের প্রতিদ্বন্দ্বী যারা

বড় উৎসবেই মূলত ছবি মুক্তির হিড়িক পড়ে। প্রতিবারের মতো এবারও সেটির ব্যতিক্রম হবে না। অাসছে ঈদুল আজহায় মুক্তির অপেক্ষায় আছে পাঁচটি ছবি। ঈদুল ফিতরে চারটি ছবি মুক্তি পেয়েছিল। যার মধ্যে তিনটি ছবিই শাকিব খানের ছিল। অন্যটি সিয়াম ও পূজার। তবে আসছে ঈদে এক ছবি নিয়েই মাঠে নামছেন শাকিব। বাকি চারটিতে দেখা যাবে ভিন্ন ভিন্ন নায়ক-নায়িকাকে।

এগুলো হল শাকিব খান ও বুবলীর ‘ক্যাপ্টেন খান’, সায়মন ও মাহির ‘জান্নাত’, রোশান ও ববির ‘বেপরোয়া’, সায়মন ও অধরার ‘মাতাল’, বাপ্পী চৌধুরী ও এমির ‘ডনগিরি’। যদিও শাকিব খানের দুটি ছবি মুক্তির তালিকায় রয়েছিল। তবে এরমধ্যে ‘নোলক’ মুক্তির কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে না বলে জানান ছবির সংশ্লিষ্টরা।

গত ঈদে শাকিবের প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন সিয়াম। আর এবারের ঈদে শাকিবের প্রতিদ্বন্দ্বী রোশান, বাপ্পী চৌধুরী, ববি হক, মাহিয়া মাহি, সাইমন সাদিক ও অধরা খানরা।

মুক্তির সম্ভাব্য তালিকায় থাকা ছবিগুলোর সবশেষ খবরা-খবর নিয়ে এ প্রতিবেদনটি তৈরির করার সময় প্রতিবেদক ছবিগুলোর প্রযোজক, পরিচালক, অভিনেতা, অভিনেত্রীদের সঙ্গে কথা বলে সবশেষ অবস্থা তুলে ধরেছেন। শোনা যাচ্ছে, ‘বেপরোয়া’, ‘মনে রেখ’, ‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’ ও ‘মাতাল’ ছবিগুলো নিয়ে আইনি ও প্রযোজকদের দিক থেকে জটিলতা থাকায় ছবিগুলো মুক্তিতে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

তবে এবারের ঈদে একাধিক ছবির মুক্তিতে খুশি শাকিব। তিনি জানান, ‘একাধিক ছবি থাকলে মার্কেটের আসল চিত্রটা আসলে বোঝা যায়। তখন দর্শকদের হাতেও বেশ অপশন থাকে। বিভিন্ন ধরনের কাজ তারা দেখতে পায়। অনেক সময় দেখা গেছে এতে করে বাড়তি দর্শকও তৈরি হয়। সিনেমার বাজার প্রসারিত হয়। দিন শেষে ইন্ডাস্ট্রি লাভবান হয়। এ দৃশ্য দেখতে কার না ভালো লাগে?’

‘ক্যাপ্টেন খান’ ছবির প্রযোজক সেলিম খান বলেন, ‘আজ আমরা সেন্সরে ছবিটি জমা দিয়েছি। আশা করি প্রায় দুইশ হলে মুক্তি দিতে পারব। হল মালিকদেরও ছবিটি নিয়ে বেশ আগ্রহ আছে। দেখা যাক কী হয়।’

এদিকে ২০১৫ সালে ঈদে মাহি অভিনীত সবশেষ ‘অগ্নি ২’ ছবিটি মুক্তি পেয়েছিল। এরপর তাকে আর ঈদের কোনো ছবিতে দেখা যায়নি। তবে এবারের ঈদে এই নায়িকার আলোচতি ছবি জান্নাত মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের ‘জান্নাত’ ছবির নায়ক সাইমন সাদিক।

মুক্তির তালিকায় থাকা আলোচিত আরেকটি ছবির নাম ‘বেপরোয়া’। এতে অভিনয় করেছেন ববি হক ও রোশান। নির্মাণ করেছেন ওপার বাংলার নির্মাতা রাজা চন্দ। এরই মধ্যে জাজ মাল্টিমিডিয়া থেকে ঈদে ছবিটি মুক্তির ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন দাবি করেছেন, ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।

‘আমার প্রেম আমার প্রিয়া’ ছবিটির মুক্তির বিষয় নিয়ে দোটানায় আছেন ছবির নির্মাতা শামীমুল ইসলাম শামীম। তিনি ঈদে ছবিটি মুক্তি দিতে চান না। আর ছবির প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন পরীমণি ও কায়েস আরজু। য

অন্যদিকে নির্মাতা শাহিন সুমনের ‘মাতাল’ ছবিটি প্রথমে মুক্তির কথা না থাকলে নির্মাতা এখন বলছেন ছবিটি তিনি মুক্তি দেবেন। যার জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি তিনি সম্পন্ন করেছেন। সোমবার সেন্সরে জমা দেবেন ছবিটি।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে