আপডেট : ১১ মার্চ, ২০১৬ ১৬:১৭

বিয়ে অতঃপর মিডিয়া থেকে আড়ালে তারা

বিনোদন ডেস্ক
বিয়ে অতঃপর মিডিয়া থেকে আড়ালে তারা

বিয়ে অতঃপর সংসার নিয়ে ব্যস্ত সময়ে নিজেদের পার করছেন বড় পর্দার ও ছোট পর্দার দর্শকপ্রিয় মুখ। ক্যারিয়ারের সাফল্য থাকার পরও শুধুমাত্র স্বামী ও সন্তানের জন্য সবকিছু বির্সজন দিয়ে তারা এখন গৃহিনী। তাদের কাছে এখন তাদের দুনিয়া সংসার ও পরিবার। তবে মাঝে-মধ্যে ক্যামেরার সামনে চলেই আসেন।

পূর্ণিমা:
ঢাকাই চলচ্চিত্রের মিষ্টি নায়িকা পূর্ণিমা। সিনেমার পর্দা থেকে বহু আগেই নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন। এরপর  কিছুদিন ছোট পর্দায় কাজ করলেও সেটি থেকেও নিজেকে আড়াল করেছেন। স্বামী সংসার নিয়ে ব্যস্ত থাকায় মিডিয়া অঙ্গণ থেকে একেবারেই দূরে যাওয়ার প্রধান কারণ চলচ্চিত্রের প্রথম সারির এ নায়িকার।

পূর্ণিমা এ বিষয়ে অবশ্য গণমাধ্যমকে বলেছেন, অামাকে স্বামী-সন্তান নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হয় বলে সিনেমা বা নাটকের কাজ করা হচ্ছে না কিন্তু যখনি সুযোগ পাই তখনি ছোট পর্দায় কাজ করছি। তবে বড় পর্দায় কাজ করার মতো সময় এখন আমার হাতে নেই।

১৮ বছরের অভিনয় জীবনে শতাধিক দর্শকনন্দিত ছবি উপহার দিয়েছেন পূর্ণিমা। আর স্বীকৃতস্বরূপ পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। জাকির হোসেন রাজুর 'এ জীবন তোমার আমার' ছবির মধ্য দিয়ে ১৯৯৮ সালে তিনি নায়িকা হিসেবে রুপালি পর্দায় যাত্রা শুরু করেন। তার মুক্তিপ্রাপ্ত সর্বশেষ ছবি সোহানুর রহমান সোহানের 'লোভে পাপ পাপে মৃত্যু'।

সারিকা করিম:
এক সময়ের মেয়েদের ফ্যাশন আইকন ছিলেন মডেল ও অভিনেত্রী সারিকা করিম। তিনি যেটিই করতেন সেটি যেনো দর্শকপ্রিয় হতে বাধ্য ছিলো। মিডিয়ায় এক উজ্জ্বলসম্ভাবনা মডেল ও অভিনেত্রী হঠাৎ করেই নিজেকে আড়াল করেন। ২০১৪ সালে ব্যবসায়ী মাহিম করিমকে খুব গোপনেই বিয়ে করেন।

বিয়ের পর বরকে মিডিয়ার সামনে এনে ঘোষণা দেন বর্তমানে তিনি সংসারে বেশি মনোযোগী হতে চান। এরপর ২০১৫ সালে কন্যা সন্তানের মা হওয়ার পর একেবারেই মিডিয়ার আড়ালে চলে যান একসময়ের সাড়া জাগানে ‘বাংলালিংক’ খ্যাত মডেল সারিকা। তার ক্যারিয়ার শুরু হয় ২০০৬ সালে এবং মিডিয়া থেকে সড়ে দাঁড়ান ২০১৩ সালে।

বিন্দু:
লাক্স তারকা বিন্দু। একসময়ের গ্ল্যামার কন্যা হিসেবে পরিচিত ছিলো। তার হাইট, মিষ্টি হাসি সবই দর্কশদের কাছে পাগল করার মতো ছিলো। একাধিক নাটক ও মডেলিং’ কারণে অন্যকাজে শিডিউল মেলাতে পারতেন না তিনি। ছোট পর্দার দাপটের পর বড় পর্দায় কাজ শুরু করেছিলেন তিনি। তবে ক্যারিয়ারের এমন একটি সময় এসে হঠাৎ করেই মিডিয়া থেকে একেবার অন্তরালে চলে যান।

জানা যায়, ব্যবসায়ী আসিফ সালাহউদ্দিন মালিকের সঙ্গে বিয়ের পর্ব শেষ করেন। এরপর কোনো নাটক বা মডেলং করেননি তিনি। বিয়ের ঠিক দু’বছেরের মাথায় বরের সঙ্গে নিজের সহকর্মী ও গণমাধ্যমের সঙ্গে পরিচয় করান বিন্দু।

শায়না:
২০০৬ সালে ‘ক্রস কানেকশন’ নাটক দিয়ে ছোট পর্দার কাজ শুরু করেন মডেল ও অভিনেত্রী শায়না। এরপর বেশ কিছু নাটক ও বিজ্ঞাপনে কাজ করেন তিনি। ২০১১ সালে ‘এক জীবন’ শিরোনানে গানের মডেল হয়ে বাজিমাত করেন শায়না। জনপ্রিয়তা যখন আকাশ তুঙ্গে তখন বড় পর্দায় অভিষেক হয়‘মেহেরজান’ এবং ‘পুত্র যখন পয়সাওয়ালা’ সিনেমার মধ্য দিয়ে।

কিন্তু তিনিও একি ঘাটে নৌকা ভিড়ালেন লন্ডন প্রবাসী মাসুদ রানার সঙ্গে বিয়েল পর্ব শেষ করে উড়াল দেন লন্ডনে। মিডিয়া থেকে নিজের নাম মুছে ফেলে বর্তমানে লন্ডনে মেয়ে ও স্বামীকে নিয়ে সংসার জীবন উপভোগ করছেন শায়না।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে