আপডেট : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৯:২১

রক্তে লেখা প্রেমের চিঠি পেতেন মিম

বিনোদন ডেস্ক
রক্তে লেখা প্রেমের চিঠি পেতেন মিম

ঢালিউড এবং টলিউডের ব্যাস্ত নায়িকা বিদ্যা সিনহা মিম। অল্প দিনেই মন কেড়েছেন সিনেমা প্রেমীদের।জুটিয়েছেন দেশ বিদেশের অনেক ভক্ত। মিম ভক্তদের জন্য রয়েছে আমাদের বিশেষ আয়োজন পেছনের গল্প। শুনে নিন মিমের নিজের মুখেই-

স্কুল জীবনে অনেকেই আমার প্রেমে পড়েছেন। কোচিং সেন্টারে যাওয়ার পথে বাসার গলির সামনে দুজন, এরপর আরেকটু সামনে আরো দুজন, সর্বশেষ কোচিং সেন্টারের সিঁড়িতে আমার একজন সহপাঠী অপেক্ষা করতো। ওর নামটা বলতে চাচ্ছি না। ও প্রতিদিন একটা করে চিঠি দিত। আর চিঠি না নিলে সিঁড়ি থেকে সরতো না। এ কারনে বাধ্য হয়েই প্রতিদিন চিঠি নিতে হত। এ বিষয়গুলো নিয়ে আমি ও আমার বান্ধবীরা মজা করতাম। মজার বিষয় হলো, ওই ছেলেটাকে আমার কাছের এক বান্ধবী পছন্দ করতো। তাই ওর সব চিঠি আমার ওই বান্ধবী নিয়ে যেত।

আমার জন্য কেউ অপেক্ষা করতো এ বিষয়গুলো নিজের কাছে ভালো লাগতো। এর পরে একদিন দেখলাম ছেলেটি রক্ত দিয়ে চিঠি লিখেছে। এ বিষয়টি খারাপ লেগেছে। এরকম মাঝে মাঝেই রক্ত দিয়ে চিঠি লিখতো। এজন্য ছেলেটির জন্য মায়া হত। ঠিক তার পরেই আমি লাক্স-এ অডিশন দেয়ার জন্য কুমিল্লা থেকে ঢাকায় চলে আসি। এরপর আর ওই ছেলের সঙ্গে দেখা হয়নি। আমিও কাজ নিয়ে ব্যস্ত হয়ে যাই। তখন আমার কাছে কোন মোবাইল ছিলো না। তাই আর ওই ছেলের সঙ্গে যোগাযোগ হয়নি। কিন্তু আমি জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার পরে জানতে পারি ওই ছেলেও এ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছে। যদিও তার সঙ্গে আমার আর দেখা হয়নি।

অন্যদিকে, বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী হওয়ায় লেখা পড়ার ব্যস্ততা একটু বেশি ছিলো। তাছাড়া আমার সঙ্গে প্রায়ই মা থাকতেন। তাই একটু ভয় কাজ করতো। আমারও কাউকে ভালো লাগেনি এমন নয়। ভালো তো

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম

উপরে