আপডেট : ২৮ জানুয়ারী, ২০১৬ ২২:০০

সীমানা পেরিয়ে বলিউডমাত করবেন পরশী! (ভিডিও)

বিডিটাইমস ডেস্ক
সীমানা পেরিয়ে বলিউডমাত করবেন পরশী! (ভিডিও)

সংগীত এক ধরনের শ্রবণযোগ্য কলা যা সুসংবদ্ধ শব্দ ও নৈশব্দের সমন্বয়ে মানব চিত্তে বিনোদন সৃষ্টি করতে সক্ষম। স্বর ও ধ্বনির সমন্বয়ে সঙ্গীতের সৃষ্টি। সঙ্গীতের কোনো সীমানা নেই, দেশ নেই। সঙ্গীত সবসময়ই মুক্ত। একে কাঁটাতারের বেড়ায় বন্দি রাখা যায় না। কোন দেশ বা কোন ভাষা দিয়ে নির্বাচন করা কঠিন।

যেমন আমাদের দেশীয় শিল্পীরাও টালিউডপাড়ায় বহু আগে থেকেই প্লে-ব্যাক করে আসছেন। কিন্তু বলিউড সিনেমায় হিন্দি গানে বাংলাদেশি কণ্ঠশিল্পীদের সে অর্থে খুঁজে পাওয়াই যায় না। এখানে অবশ্য ভাষাগত পার্থক্যটা শুরু থেকেই প্রধান অন্তরায়। যদিও বাংলাদেশের দু’একজন শিল্পী বলিউড সিনেমায় ইতোপূর্বে প্লে-ব্যাক করেছেন, পেয়েছেন জনপ্রিয়তাও।

এরই ধারাবাহিকতায়, বলিউড সিনেমায় নতুন বাংলাদেশী হিসেবে সম্প্রতি প্লে-ব্যাক করেছেন পড়শী!

২০০৮ সালে, চ্যানেল আইয়ের ‘ক্ষুদে গানরাজ’-এ ২য় রানার-আপ হওয়ার মাধ্যমে সঙ্গীত জগতে নিজেকে পাকাপোক্ত করেন পড়শী। সুনামও কুড়িয়েছেন বেশ। তারই ধারাবাহিকতায় এতো কম বয়সে বলিউডের সঙ্গীত পাড়ায় নাম লেখানো চাট্টিখানি কথা নয়।

হিন্দি ‘লাভশুদা’ ছবির ‘মার যায়েন’ (মরে যাব) গানটিকে নতুন করে গেয়েছেন তিনি। বাংলা ভাষার মিশ্রণে এটি তৈরি করেছে ছবিটির পরিবেশক ভারতীয় প্রতিষ্ঠান টিপস মিউজিক।

গত ২৬ জানুয়ারি পড়শীর কণ্ঠে এ গানটি প্রকাশ করেছে প্রতিষ্ঠানটি। ছবিতে গানটির মূল গায়ক আতিফ আসলাম। ছবিটি মুক্তি পাবে চলতি বছরের ৫ ফেব্রুয়ারি।

গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে কম বয়সেই বলিউডে গান গাওয়ার অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন, ‘বলিউডে যাত্রা শুরু করলাম, খুব ভালো লাগছে। বাংলাদেশি কোনো সঙ্গীতশিল্পী হিসেবে এতো কম বয়সে বলিউডে গান গাওয়ার সুযোগ পেয়ে আমি খুবই আনন্দিত। ভারতীয় মিউজিক প্রতিষ্ঠান টিপস মিউজিকের সঙ্গে আমার দু’বছরের চুক্তি হয়েছে।’

জনপ্রিয় প্রতিষ্ঠান টিপস’র সঙ্গে যোগাযোগ প্রসঙ্গে বর্তমান সঙ্গীত অঙ্গনের ‘সেনসেশন’ এ গায়িকা বলেন, ‘আমার ‘মন নাজেহাল’ গানটি ভারতীয় শিল্পী শান তার পেজ থেকে শেয়ার দিয়েছিলেন। তখন টিপস মিউজিকের নজরে আসে এটি। এরপর প্রতিষ্ঠানের অন্যতম চেয়ারম্যান রমেশ তাওরানি সরাসরি আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। মূলত: তাদের প্রযোজনায় কাজ করার জন্যই এ চুক্তি। প্রথমদিকে মুম্বাই ইনডাস্ট্রিতে তারা আমাকে পরিচিত করবেন। দু’মাস আগে আমাদের এ চুক্তি হয়।’

হিন্দিতে গান গাইতে গিয়ে কোনো সমস্যায় পড়তে হয়েছে কিনা উত্তরে পড়শী বললেন, ‘না। প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান প্রথমেই আমাকে গানটির সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়েছিলেন। এরপর আমি গানটির একটি ডেমো তাকে পাঠিয়েছিলাম সেটি তার পছন্দ হয়।’

বলিউডের শিল্পীদের সঙ্গে কাজ করার স্বপ্ন দেখা পড়শী বলেন, ‘বলিউডে অনেক পছন্দের সঙ্গীত শিল্পীর মধ্যে সনু নিগাম, শান, উদিত নারায়ণ’র মতো লিজেন্ডের সঙ্গে কাজ করার স্বপ্ন দেখছি। দেখা যাক সবে তো শুরু হলো।’

পড়শীর গাওয়া এ গানের ভিডিওটি নির্মাণ করেছেন বাংলাদেশের নির্মাতা রাজ ইসলাম। গানটির সংগীতায়োজন করেছেন আরেফিন রুমি।

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এসএম

উপরে