আপডেট : ২২ ডিসেম্বর, ২০১৫ ১৭:৪৮

শোক নয়, এবার উৎসবে-আনন্দেই মান্না স্মরণ

বিনোদন ডেস্ক
শোক নয়, এবার উৎসবে-আনন্দেই মান্না স্মরণ

অবশেষে আলোর মুখ দেখতে চলেছে ‘মান্না উৎসব’। চলচ্চিত্রাঙ্গনের কলাকুশলীদের নিয়ে ১ জানুয়ারি ঢাকার শিশু একাডেমি চত্বরে মান্না ফাউন্ডেশন আয়োজন করতে যাচ্ছে ‘মান্না উৎসব ২০১৬- ড্রিমস অব মান্না’।  মান্না ফাউন্ডেশনের সঙ্গে যৌথ আয়োজক হিসেবে রয়েছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি।
 
সোমবার বিএফডিসির জহির রায়হান কালার ল্যাব মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে উৎসব আয়োজনের ঘোষণা দেন প্রয়াত নায়ক মান্নার স্ত্রী ও মান্না ফাউন্ডেশনের চেয়ারপার্সন শেলী মান্না।
 
শেলী জানালেন, চলচ্চিত্রাঙ্গনের কলাকুশলীদের নিয়ে একাধিকবার মান্না উৎসব আয়োজনের কথা থাকলেও শেষমুহূর্তে রাজনৈতিক অস্থিরতা, পারিবারিক ঝক্কি-ঝামেলায় ভেস্তে গিয়েছে মান্না উৎসবের শেষ প্রস্তুতি।
 
শেলী বলেন, “শুধু শোকের মাধ্যমে নয়, মান্নাকে আমরা এবার উৎসবের মাঝেও স্মরণ করতে চাই। তার অসমাপ্ত কাজ ও স্বপ্নকে ঘিরে বাস্তবায়িত করার লক্ষ্যে চলচ্চিত্র ও সংগীত জগতের সব তারকা স্বজনদের নিয়ে আমরা এই জয়যাত্রার শুভ সূচনা করতে চাই।”
 
মান্না উৎসব নিয়ে শেলী মান্না বলেন, “মান্না উৎসব আয়োজনে বারবার বাধা এসেছে। নানা সময়ে স্পন্সর জটিলতাতেও পড়তে হয়েছে আমাকে। মান্না ফাউন্ডেশনের অগ্রদূত পরিচালক চাষী নজরুল ইসলামও আর আমাদের মাঝে নেই।
 
“তবুও কি থেমে থাকা চলে! আমরা এই উৎসব আয়োজনে মান্নার বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনালেখ্য, তার অভীষ্ট লক্ষ্য পূরণে কার্যক্রমগুলোকে এগিয়ে যেতে চাই।”
 
তিনি জানান, মান্না ফাউন্ডেশন স্বউদ্যোগে দুস্থ মানুষের চিকিৎসা সহায়তা ও পুনর্বাসনসহ সারা দেশজুড়ে মান্না স্মৃতি পরিষদ গঠন করে অঞ্চলভিত্তিক প্রাকৃতিক বিপর্যয় মোকাবেলায় ক্ষতিগ্রস্থদের মধ্যে খাদ্য, বস্ত্র, ওষুধ ইত্যাদির ব্যবস্থাপনা ও বন্টন, অবহেলিত শিশুদের জন্য শিক্ষা উপকরণের জোগানের মতো স্বেচ্ছাসেবী কার্যক্রম পরিচালক করছে।
 
সংবাদ সম্মেলনে মান্না ফাউন্ডেশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট চিত্রনায়িকা মৌসুমী বলেন, “মান্না সবসময় স্বপ্ন দেখতেন, আর্তমানবতায় সেবায় কিছু করবেন। তিনি স্বপ্ন দেখতেন মন্ত্রী হবেন, মানুষের জন্য কিছু করতে চাইতেন জনগণের নায়ক মান্না।”

দায়িত্ববোধ ও নাগরিক সচেতনতা তেকেই তিনি মান্না ফাউন্ডেশনের সঙ্গে নিজেকে সম্পৃক্ত করেছেন বলেও জানান মৌসুমি।
 

 
বিডিটাইম৩৬৫ ডটকম/একে

উপরে