আপডেট : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৩:৩৮

দিব্যি এদেশে ঘর সংসার পেতেছিল পোল্যান্ডের এই ভয়ংকর জালিয়াত!

বিডিটাইমস ডেস্ক
দিব্যি এদেশে ঘর সংসার পেতেছিল পোল্যান্ডের এই ভয়ংকর জালিয়াত!

জালিয়াতিই তার পেশা। একেকসময় একেক দেশে আস্তানা গাড়েন, স্থায়ীভাবে বসবাসের জন্য  বিয়েও করেন, অনেক জায়গায় হয়েছেন সন্তানের বাবাও। কাজ শেষ হলে বা ধরা পড়ার মত পরিস্থিতি তৈরি হলে সরে পড়েন সেদেশ থেকে। আবার নতুন কোন দেশে শুরু হয় তার জালিয়াতির কর্মকান্ড।

এই আন্তর্জাতিক ভয়ংকর জালিয়াতের নাম পিটার। তিনি পোল্যান্ডের নাগরিক। সম্প্রতি এটিএম কার্ডে জালিয়াতির ঘটনায় সিসি ক্যামেরায় পাওয়া ছবি দেখে তাকেসহ তার সহযোগী বাংলাদেশীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এরপর বেরিয়ে এসেছে ভয়ংকর সব তথ্য।  

তিনি শুধু এখানে নয়, এর আগে নিজের দেশ পোল্যান্ডেও একই কাণ্ড ঘটিয়েছেন। একে একে রাশিয়া, ইউক্রেন, রোমানিয়াসহ আরও কয়েকটি দেশে এই বিষবৃক্ষ রোপণ করেন। এমনকি যেখানে এই অপকর্মের আখড়া গেড়েছেন সেখানেই স্থায়ীভাবে বসবাসের জন্য স্থানীয় নাগরিককে বিয়েও করেন। একইভাবে ঢাকায় থেকে যাওয়ার জন্য বাংলাদেশী এক হোটেল কর্মচারীকে বিয়ে করে বহাল-তবিয়তে সংসার পেতে বসেন। গেল সপ্তাহে তিনি পুত্র সন্তানের বাবাও হয়েছেন। এভাবে বেরিয়ে এসেছে ক্রেডিট কার্ড জালিয়াতির সঙ্গে যুক্ত গডফাদার পিটারসহ আন্তর্জাতিক এক বিরাট চক্রের আদ্যোপ্রান্ত।

প্রসঙ্গত, এ মাসের প্রথম সপ্তাহে ৬ ও ৭ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে স্থাপিত বেসরকারি তিনটি ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে অন্তত ২০ লাখ টাকা তুলে নেয় চক্রটি। টাকা হাতিয়ে নিতে তারা স্কিমিং ডিভাইস বসিয়ে গ্রাহকদের গোপন তথ্য চুরি করে। এরপর ঘটনার শিকার ২১ জন সাধারণ গ্রাহক ছাড়াও সংশ্লিষ্ট ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড (ইউসিবিএল), সিটি ব্যাংক ও ইস্টার্ন ব্যাংক কর্তৃপক্ষের এ বিষয়ে টনক নড়ে। এ সেক্টরের কড়া নিরাপত্তা সুরক্ষায় বাংলাদেশ ব্যাংকও দ্রুত এগিয়ে আসে। মাঠে নামে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

উপরে