আপডেট : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ০২:১৭

ছাত্রীকে তুলে নিয়ে যাওয়ার সময় ইমাম আটক

বিডিটাইমস ডেস্ক
ছাত্রীকে তুলে নিয়ে যাওয়ার সময় ইমাম আটক

পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে শ্রেণীকক্ষ থেকে কোলে তুলে নিয়ে যাওয়ার সময় এক ইমামকে আটকের পর পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা। বুধবার ধামরাই উপজেলার বড় চন্ডাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

আটক ইমামের নাম মাওলানা তৌহিদুল ইসলাম (২৮)। তার বাবার নাম মৃত আবদুর রশিদ মিয়া। মানিকগঞ্জ জেলার নবগ্রাম গ্রামে তাদের বাড়ি। তিনি স্থানীয় বারিগাঁও জামে মসজিদের সাবেক ইমাম। জানা গেছে, উপজেলার কুল্লা ইউনিয়নের বড় চন্ডাইল গ্রামের পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে বেশ কয়েক দিন ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছিলেন তৌহিদুল।

 বুধবার বেলা ১২টার দিকে বড় চন্ডাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান চলছিল। এসময় বিদ্যালয়ের তিন তলার শ্রেণী কক্ষ থেকে ওই ছাত্রীকে কোলে তুলে জোর করে নিচতলায় নামিয়ে আনেন তৌহিদুল। তখন ওই ছাত্রী চিৎকার দিলে স্কুলের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা তৌহিদুলকে আটক করে। খবর পেয়ে এলাকার  নারী-পুরুষও বিদ্যালয়ে ভিড় জমায়। পরে ইমাম তৌহিদুলকে গণপিটুনী দিয়ে তাকে পুলিশের কাছে সোর্পদ করা হয়। এ ব্যাপারে বড় চন্ডাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রেভা রানী চৌধুরী জানান, ওই ছাত্রীকে এক সময় পড়াতেন ওই 'ইমাম'। তাকে জোর করে নিয়ে যেতে চাইলে ইমামকে আমরা বাঁধা দেই। একপর্যায়ে ওই ছাত্রীর অভিভাবকসহ এলাকাবাসী তাকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে।'

ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ রিজাউল হক বলেন, 'হুজুর থানায় আটক রয়েছে। মোবাইল কোর্টের ম্যাধমে তার বিচারের ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।  

 

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আইএম

 

উপরে