আপডেট : ২০ জানুয়ারী, ২০১৬ ১৬:৫১

মুক্তিপণ না দেয়ায় ২ সহোদরের লাশ মিললো খালে

বিডিটাইমস ডেস্ক
মুক্তিপণ না দেয়ায় ২ সহোদরের লাশ মিললো খালে

অপহরণের পর মুক্তিপণ না পাওয়ায় সহোদর দুই শিশুকে হত্যা করে লাশ খালে ফেলে দিয়েছে অপহরণকারীরা।

নিখোঁজের তিনদিন পর বুধবার ভোরে রামুর গর্জনিয়া এলাকার একটি খালে তাদের লাশ পাওয়া যায়। নিহতরা হলো ওই এলাকার মোহাম্মদ ফোরকানের ছেলে মোহাম্মদ হাসান শাকিল (১০) ও মোহাম্মদ হোছাইন কাজল (৮)। শাকিল বাইশারী শাহ নুরুদ্দিন মাদ্রাসার এবং কাজল বড়বিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র ছিল।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে চারজনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

নিহতদের বাবা ফোরকানের বরাত দিয়ে রামু থানার ওসি মো. আব্দুল মজিদ বলেন, ‘রোববার বিকালে এলাকার অন্য শিশুদের সঙ্গে বাড়ির পাশেই খেলা করছিল শাকিল ও কাজল। এক পর্যায়ে তাদের আর দেখা যায়নি।’

এরপর থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তিরা শাকিল ও কাজলের বাবার কাছে মোবাইল ফোনে চার লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে আসছিল বলে জানান ফোরকান।

ওসি আরও বলেন, ওই দিন রাতে ফোরকান থানায় মৌখিক অভিযোগ করলে পুলিশ শাকিল ও কাজলকে উদ্ধারে অভিযানে নামে।

সোমবার ও মঙ্গলবার পুলিশ ও এলাকাবাসী রামুর বড়বিল, থিমছড়ি, বাইশারী, ঈদগড়সহ বিভিন্ন পাহাড়ি এলাকায় অভিযান চালায়।

তাদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/আরকে

উপরে