আপডেট : ১৬ জানুয়ারী, ২০১৬ ১১:১৩

কোকেন আমদানির মূল হোতা গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক
কোকেন আমদানির মূল হোতা গ্রেফতার
ফাইল ছবি

চট্টগ্রাম বন্দরে সূর্যমুখী তেলের সঙ্গে তরল কোকেন আমদানি ঘটনার সাত মাস পর আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান খান জাহান আলী লিমিটেডের চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শুক্রবার র‌্যাব-৭ এর সদরদপ্তরে ‘ডেকে নেওয়ার’ পর তাকে ‘গ্রেপ্তার’ করে আদালতে হাজির করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, নূর মোহাম্মদকে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদনও জানানো হয়েছে, রবিবার শুনানি হওয়ার কথা। শুক্রবার বিকালে আদালতের নির্দেশে পর নূর মোহাম্মদকে কারাগারে পাঠানো হয়।

গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে গত ৭ জুন চট্টগ্রাম বন্দরে একটি কনটেইনার আটক করে সিলগালা করে দেয় শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তর।

বলিভিয়া থেকে মেসার্স খান জাহান আলী লিমিটেডের নামে আমদানি করা সূর্যমুখী তেলবাহী কনটেইনারটি জাহাজে তোলা হয় উরুগুয়ের মন্টেভিডিও বন্দর থেকে। সেখান থেকে সিঙ্গাপুর হয়ে গত ১২ মে পৌঁছায় চট্টগ্রাম বন্দরে।

পরে আদালতের নির্দেশে কন্টেইনার খুলে ১০৭টি ড্রাম থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়। বন্দরের পরীক্ষায় কোকেনের উপস্থিতি না মেলায় ঢাকার বিসিএসআইআর এবং বাংলাদেশ ড্রাগ টেস্টিং ল্যাবরেটরিতে তরলের নমুনা পুনরায় পরীক্ষা করা হয়। দুই পরীক্ষাগারেই তরল কোকেনের অস্তিত্ব ধরা পড়ে।

এ ঘটনায় ২৮ জুন বন্দর থানায় আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান খান জাহান আলী লিমিটেডের চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ ও কর্মচারী গোলাম মোস্তফা সোহেলকে আসামি করে মাদক আইনে মামলা করে পুলিশ। পরে আদালত মামলায় চোরাচালানের ধারা সংযোগের নির্দেশ দেয়।

গত ১৯ নভেম্বর আটজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন তদন্ত কর্মকর্তা নগর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী কমিশনার (দক্ষিণ) মো. কামরুজ্জামান। এতে ৫৮ জনকে সাক্ষী করা হয়।

তবে আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যানকে মামলা থেকে অব্যাহতির সুপারিশ করা হয় অভিযোগপত্রে। গত সাত ডিসেম্বর ওই অভিযোগপত্র গ্রহণ না করে মামলাটি অধিকতর তদন্ত করতে র‌্যাবকে নির্দেশ দেয় আদালত।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/এআর

উপরে