আপডেট : ৯ জানুয়ারী, ২০১৬ ১০:৪৫

নিজের শরীরে আগুন লাগিয়ে প্রতিবাদ! মারা গেল গৃহকর্মী জবা

অনলাইন ডেস্ক
নিজের শরীরে আগুন লাগিয়ে প্রতিবাদ! মারা গেল গৃহকর্মী জবা

অনেকেই আছেন যারা গৃহকর্মীকে মানুষ বলেই গণ্য করেন না। অমানুষিক নির্যাতন চালান শিশু গৃহকর্মীর উপর। মুখ বুঝে সহ্য করা ছাড়া অন্য কোন উপায় খুঁজে পায়না অসহায় এই মানুষগুলো। গৃহকর্মীদের হয়ে ব্যতিক্রমী এক প্রতিবাদের উদাহরণ জবা। নিজের জীবন দিয়ে সে হয়তো বুঝাতে পেরেছে গৃহকর্মীরাও মানুষ।

বাড়িওয়ালা ও তার মেয়েরা তাকে নিয়মিত নির্যাতন করত। পালিয়ে আসতে চাইলেও পারতো না। নির্যাতন সইতে না পেরে আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেয় মেয়েটি। নিজেই নিজের শরীরে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরীতে গৃহকর্তা ও তার মেয়েদের নির্যাতন সইতে না পেরে গতকাল শুক্রবার সকালে শরীরে আগুন দেয় জবা। গৃহকর্তা কল্লোল আহমেদ তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করেন।

শরীরে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টাকারী জবা আক্তার (১০) নামের সেই শিশু গৃহকর্মীটি আর বেঁচে নেই।

আজ(৯ জানুয়ারি)শনিবার দিনের শুরুতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় জবা।

গতকাল ঢামেক বার্ন ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক পার্থশংকর পাল জানিয়েছিলেন, আগুনে জবার খাদ্যনালীসহ শরীরের ৯৫ শতাংশ পুড়ে গেছে।

শুক্রবার হাসপাতালে আনার পর জবা বলতে থাকে, ''আমি মইরা যামু, বাঁচতে চাই না। ওগো লাইগা আমি আত্মহত্যার চেষ্টা করছি।''

দেড় বছর আগে বগুড়া থেকে জবা ঢাকায় কল্লোল আহমেদের বাসায় কাজে যোগ দেয়। সিদ্ধেশ্বরীর একটি অ্যাপার্টমেন্টের আট তলায় কল্লোল আহমেদ পরিবারসহ বাস করেন।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জেডজেড

উপরে