আপডেট : ৮ মে, ২০১৯ ১২:০৯

মাশরাফিকে গালি, সেই ৬ চিকিৎসককে শোকজ

অনলাইন ডেস্ক
মাশরাফিকে গালি, সেই ৬ চিকিৎসককে শোকজ

ভালো কাজে বাধা দেওয়াটা আমাদের সমাজে বড়সড় রীতিতে পরিণত হয়েছে। আপনি একটি ভালো কাজ করতে যাবেন ১০জন লোক আপনার পিছু নিবে।যেমনটা নিয়েছিল বাংলাদেশ জাতীয় ওয়ানডে দলের অধিনায়ক এবং নড়াইল দুই আসনের এমপি মাশরাফি বিন মর্তুজার বিরুদ্ধে। 

নড়াইল সদর হাসপাতালের অনিয়ম নিয়ে কথা বলায় মাশরাফিকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করেন একাধিক ডাক্তার। শুধু তাই নয়, তার পরিবার-ব্যক্তিগত ব্যাপার নিয়ে তাকে ফেসবুকে কোনঠাসা করেন তারা। সে জন্যই চিহিৃত ৬ চিকিৎসকের বিরুদ্ধে শোকজ নোটিস জারি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ থেকে এ শোকজ নোটিশ জারি করা হয়। অভিযুক্ত চিকিৎসককে নোটিস প্রাপ্তির ৩ (তিন) কর্মদিবসের মধ্যে কারণ দর্শানানোর জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

অভিযুক্ত চিকিৎসকরা হলেন চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজের হেমাটো অনকোলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. এ কে এম রেজাউল করিম, ঢাকা মেডিকেল কলেজের রেসপিরেটরি মেডিসিনের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম, কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের নিউরালোজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক,ডা. পঞ্চানন দাশ, বগুড়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পেডিয়াট্রিকসের রেজিষ্ট্রার ডা. আইরিন আফরাজ, নওগাঁ জেলা হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মৌমিতা জলিল জুলি ও মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের মেডিকেল অফিসার ডা. ফাহমিদী হাসান ।

একজন সরকারি কর্মকর্তা হিসেবে এ আচরণ অনুচিত ও অনভিপ্রেত উল্লেখ করে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, এসব আচরণ সরকারি কর্মচারী আচরণ বিধিমালার পরিপন্থী যা সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ২০১৮ এর ৩ (খ) মোতাবেক ‘অসদাচরণ হিসেবে গণ্য। তাই সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা, ২০১৮ এর ৩ (খ) মোতাবেক অসদাচরণের দায়ে অভিযুক্ত করে কেন উক্ত বিধিমালার অধীনে যথােপযুক্ত দণ্ড প্রদান করা হবে না তা এ নোটিস প্রাপ্তির ৩ (তিন) কর্মদিবসের মধ্যে কারণ দর্শানো জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হল।

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/রাসেল

উপরে