আপডেট : ১৭ অক্টোবর, ২০১৮ ১৯:২৭

পরীক্ষায় সফল হয়েছেন মাশরাফি

অনলাইন ডেস্ক
পরীক্ষায় সফল হয়েছেন মাশরাফি

এবারের এশিয়া কাপে গ্রুপ পর্ব থেকে শুরু করে পাকিস্তানের বিপক্ষে অঘোষিত সেমিফাইনাল ম্যাচ পর্যন্ত বাংলাদেশের ওপেনিং জুটি ছিল ব্যর্থ। তামিম ইকবাল ইনজুরির কারণে এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে গেলে লিটন দাসের সঙ্গে ওপেনিংয়ে আসেন নাজমুল হোসেন শান্ত। তাদের ওপেনিং জুটিতে সর্বোচ্চ ১৬ রান এসেছে।

এরপর এশিয়া কাপের মাঝপথেই সৌম্য সরকারকে দুবাইয়ে উড়িয়ে নিয়ে গেলেও লাভ হয়নি। পাকিস্তানের বিপক্ষে ওপেনিংয়ে নেমে দলীয় পাঁচ রানেই সাঝঘরে ফেরেন তিনি। কিন্তু অধিনায়ক মাশরাফি সবচেয়ে বড় চমক এশিয়া কাপের ফাইনালে। ভারতের বিপক্ষে লিটন দাসের সঙ্গে ওপেনিংয়ে নামেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

আর ওপেনিংয়ে নেমে লিটনের সঙ্গে গড়েন ১২০ রানের জুটি। এ পরীক্ষায় সফল হয়েছেন মাশরাফি। সামনে যদি দলের প্রয়োজনে ওপেনিংয়ে নামতে হয় তাহলে সেটিই করবেন মিরাজ। আজ সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে এমনটিই জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘ফাইনাল ম্যাচ ওপেন করেছি, আমিও ভাবিনি আমি ফাইনালে ওপেন করবো। মাশরাফি ভাই ম্যাচের আগের দিন রাতে বলেছেন, সবাই যারা সিনিয়র আছে সবাই অনেক সাপোর্ট দিয়েছেন। এই জন্য অনেক আত্মবিশ্বাস পেয়েছি। এটা থেকে আমি শিক্ষা নিয়েছি, যে কোনো মুহূর্তে আমাকে দলের প্রয়োজনে যে কোনো জায়গায় নামতে হতে পারে। আমার মানসিকতা থাকবে, যে কোনো সময় এমন কিছু হতে পারে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমি সবসময় চ্যালেঞ্জ নিতে পছন্দ করি। কঠিন অবস্থার চ্যালেঞ্জ আমি উপভোগ করি। আর পেছন থেকে যখন টিম ম্যানেজমেন্ট সাপোর্ট দেয়, আমাদের সিনিয়র প্লেয়ায়রা, সবাই যখন ব্যাক আপ করে, তখন নিজের আত্মবিশ্বাসটা অনেক বেড়ে যায়। ফাইনালের আগের রাতে যখন আমাকে বলা হয় ওপেন করতে হবে, তখন মাশরাফি ভাই, রিয়াদ ভাই বললো, ‘করতে পারবি, সমস্যা নাই’। তখন নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাসটা বাড়ল।’

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে