আপডেট : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১০:৪৮

'দলের প্রয়োজনেই আমার 'ফিফটি' কম'

অনলাইন ডেস্ক
'দলের প্রয়োজনেই আমার 'ফিফটি' কম'

২০১৪ সালে টি-টোয়েন্টি দিয়ে অভিষেক হয় সাব্বির রহমানের। ঐ বছরেরই নভেম্বরে ওয়ানডে খেলা শুরু করেন সাব্বির। চার বছরের ক্যারিয়ারে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে দলের নিয়মিত মুখ হয়ে ওঠা এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান টেস্টও খেলেছেন ১১ টি। তবে তিন ধরণের ফরম্যাট মিলিয়ে সাকুল্যে ফিফটি করেছেন ১৩ টি।

১১ টেস্টের ২২ ইনিংসে ব্যাট করা সাব্বিরের ফিফটি চারটি, এক ইনিংসে সর্বোচ্চ রান ৬৬। ওয়ানডে দলের নিয়মিত মুখ সাব্বির রহমান ইতোমধ্যেই খেলে ফেলেছেন ৫৪ ওয়ানডে। দলের নিয়মিত মুখ হলেও, গুরুত্বপূর্ণ ব্যাটিং পজিশনে ব্যাটিং করার সুযোগ পেলেও এই ফরম্যাটে ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানের সর্বোচ্চ স্কোর ৬৫, ফিফটি মোটে ৫ টা। টি-টোয়েন্টিতে অবশ্য বলার মতো রেকর্ড আছে সাব্বিরের।

সম্প্রতি জনপ্রিয় ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকবাজের সাথে খোলাখুলি কথা বলেছেন সাব্বির রহমান। সাব্বিরের ভাষ্যমতে দলে নিজের নির্দিষ্ট কোন ব্যাটিং পজিশন না থাকা ও দলের প্রয়োজনে খেলার কারণেই কম তাঁর ফিফটির সংখ্যা। অবশ্য নিজের কাঁধেও কিছুটা দোষ দিয়েছেন তিনি।

‘আমি গত চার বছরে ৫০ (১১ টেস্ট, ৫৪ ওয়ানডে, ৪১ টি-টোয়েন্টি) এর মতো ম্যাচ খেলেছি। কিন্তু আমার কোন নির্দিষ্ট ব্যাটিং পজিশন ছিলনা। আমি তিন নম্বরে নেমে বেশি রান করেছি। যদি একজন ক্রিকেটার তাড়াতাড়ি উইকেটে আসে আর শেষ অব্দি উইকেটে থাকে তাহলে নিশ্চিতভাবেই সে বেশি রান করবে। আমি বেশ কিছু ফিফটি ও সেঞ্চুরি মিস করেছি দলের চাওয়া পূরণ করার নিমিত্তে; সর্বদাই আমি দলের জন্যই খেলেছি। দলের সবাইই দলের জন্যই খেলে।’

সাব্বিরের কথাকে অগ্রাহ্য করার উপায় অবশ্য নেই। ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে ওয়ানডেতে নামতেন ৭, ৬, ৫ বা ৮ এ। প্রথম ২১ ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমেছিলেন এসব ব্যাটিং পজিশনেই। ২০১৬ সালে আফগানদের বিপক্ষে প্রথমবারের মতো ৫০ ওভারি ক্রিকেটে তিনে নেমে সাব্বির খেলেন ৭৯ বলে ৬৫ রানের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পরের তিন ইনিংসেও তিনে নামা সাব্বিরের রান ছিল যথাক্রমে- ১৮,৩ ও ৪৯। তবে পরের ইনিংসেই ক্রাইস্টচার্চে ৭ নম্বরে নেমে তিনি করেন ১১ বলে ১৬ রান।

পরের ম্যাচে নেলসনে আবার তিনে ফেরেন সাব্বির। এ যাত্রায় তিনে খেলেন টানা ৮ ইনিংস। সেখানে সাব্বিরের রান ছিল যথাক্রমে- ৩৮, ১৯, ৫৪, ০,০, ১, ৩৫, ৬৫। গেলবছরের জুনে ওভালে আবার নামেন ছয়ে। ১৫ বলে যেখানে ৩ চারে ২৪ রান করেন সাব্বির। তিনে ফেরেন এক ইনিংস পরেই, দুই ইনিংসে ৮ ও ১৯ রান করা সাব্বিরকে আবার ফিরে যেতে হয় ৬ নম্বরে!

এখন অব্দি ৫৪ ওয়ানডের ৪৮ ইনিংসে ব্যাট করেছেন সাব্বির রহমান। যেখানে সাব্বিরের ব্যাটিং পজিশন ছিল এরকম– ৭, ৫, ৭, ৭, ৭, ৭, ৮, ৬, ৭, ৭, ৭, ৬, ৬, ৬, ৬, ৭, ৬, ৬, ৬, ৭, ৬, ৩, ৩, ৩, ৩, ৭, ৩, ৩, ৩, ৩, ৩, ৩, ৩, ৩, ৬, ৬, ৩, ৩, ৬, ৭, ৭, ৬, ৬, ৬, ৩, ৪, ৬, ৭।

গত দুই ইনিংসে নিজের ব্যর্থতা সম্পর্কে সাব্বিরের ব্যাখ্যা, ‘গত দুই সিরিজে আমি ইনিংসের শেষ কিছু বল খেলেছি। আপনি কিন্তু সবসময় একজন ব্যাটসম্যানের কাছ থেকে শেষ ২০ বলে ৪০ থেকে ৫০ রান আশা করতে পারেন না। বেশ কিছু ইনিংস ছিল যেখানে আমার আউট হবার জন্য আমিই দায়ী ছিলাম। আমি আমার উইকেট সহজেই বিলিয়ে দিয়েছিলাম। আমি ঐসব বিষয় নিয়েই কাজ করছি। কোথায় আমি ভুল করেছি সেটা উপলব্ধি করে সেসব বিষয়ে কাজ করছি। আবার সুযোগ পেলে (নিষেধাজ্ঞা শেষে) আমি দলের জন্য ও নিজের জন্য আরো বেশি রান করার চেষ্টা করবো। এবং আমি আত্মবিশ্বাসী আমি সেটা করতে পারবো।’

উপরে