আপডেট : ১৭ জুন, ২০১৮ ১১:২৯

বল টেম্পারিং বিতর্কে শ্রীলংকা

অনলাইন ডেস্ক
বল টেম্পারিং বিতর্কে শ্রীলংকা

মাস তিনেক আগে কেপ টাউন টেস্টে বল টেম্পারিং করে বড় ধরনের শাস্তি পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার তিন ক্রিকেটার স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার এবং ক্যামেরন ব্যানক্রফট। ধারণা করা হচ্ছিল এদের দেখে আর কেউ এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার সৃষ্টি করবে না।

কিন্তু কিসের কি! তিন মাসের মধ্যেই নতুন করে বল টেম্পারিং কাণ্ডের জন্ম দিল শ্রীলংকার ক্রিকেট দল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চলতি সেইন্ট লুসিয়া টেস্টের দ্বিতীয় দিনে বল টেম্পারিং করেছে বলে অভিযোগ আনেন ম্যাচের আম্পায়াররা।

পরে তাৎক্ষনিকভাবে ৫ রান জরিমানা করা হয় লংকানদের। আম্পায়ারদের এমন সিদ্ধান্ত মেনে নেয়নি শ্রীলংকানরা। ফলে তৃতীয়দিন দফায় দফায় মাঠ ছেড়ে যায় তারা। প্রথমে ৮০ মিনিট দেরীতে মাঠে আসে তারা, পরে আধঘণ্টা খেলেই আবারও ফিরে যায় ড্রেসিংরুমে।

তবে আইসিসি নিশ্চিত করেছে বল টেম্পারিংয়ের অভিযোগে ম্যাচের বল বদলিয়ে খেলা শুরু করেছেন আম্পায়াররা। লংকানরা আসলেই বল টেম্পারিং করে থাকলে ম্যাচ শেষে এটির ব্যাপারে পূর্ণাঙ্গ তদন্ত হবে বলে জানিয়েছে আইসিসি।

আনুষ্ঠানিক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আইসিসি জানিয়েছে, ‘আইসিসি নিশ্চিত করছে যে ম্যাচের আম্পায়াররা দ্বিতীয় দিনে বল বদলে খেলা শুরু করেছে এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৫ রান পেনাল্টি দিয়েছে। যদি এখানে অন্য কোন ঘটনা থাকে তাহলে ম্যাচ শেষে এই ব্যাপারে আরও শাস্তি-জরিমানা হবে।’

প্রথম টেস্টে স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে হেরে যাওয়া লংকানরা দ্বিতীয় টেস্টেও সুবিধাজনক অবস্থানে নেই। তৃতীয় দিন শেষে ৯ উইকেট হাতে রেখে ১৩ রানে পিছিয়ে শ্রীলংকা। প্রথম ইনিংসে তাদের ২৫৩ রানের জবাবে ৩০০ রানে অলআউট হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তৃতীয় দিন শেষে লংকানদের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৩৪ রান।

উপরে