আপডেট : ২২ মার্চ, ২০১৮ ১৪:২৫

ফেঁসে গেছেন হার্দিক পান্ডিয়া, হতে পারে জেলও!

অনলাইন ডেস্ক
ফেঁসে গেছেন হার্দিক পান্ডিয়া, হতে পারে জেলও!

ভারতীয় সংবিধানের রূপকার তথা দলিত নেতা ড. ভীমরাও আম্বেদকরের প্রতি বিদ্বেষমূলক মন্তব্যের জেরে ভারতের তারকা অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়ার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করার নির্দেশ দিয়েছেন রাজস্থানের যোধপুর আদালত। 

'রাষ্ট্রীয় ভীম সেনা' সদস্য তথা আইনজীবী ডিআর মেগওয়ালের দায়ের করা পিটিশনের ওপর ভিত্তি করেই বুধবার এই নির্দেশ দেন যোধপুরের বিশেষ এসসি/এসটি আদালত। 

রাজস্থানের আইনজীবী ডিআর মেগওয়ালের কথায়, ২০১৬ সালের ২৬ ডিসেম্বর হার্দিক পান্ডিয়া নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে আম্বেদকরকে নিয়ে একটি টুইট করেন। এই টুইটে ভারতীয় ক্রিকেট দলের এই তারকা লেখেন, "কোন আম্বেদকর? যিনি একটি পক্ষপাতদুষ্ট আইন এবং সংবিধান রচনা করেছেন, যিনি দেশে সংরক্ষণের বিষ ছড়িয়েছেন!" 

প্রথমে হার্দিকের এই মন্তব্যের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য রাজস্থানের লুনি থানার দ্বারস্থ হন আইনজীবী ডিআর মেগওয়াল। পুলিশ কোনো রকম আইনি পদক্ষেপ না করায় এরপর আদালতের দ্বারস্থ হন তিনি। 

জি নিউজের খবর অনুযায়ী, মঙ্গলবার যোধপুর আদালতে বিশেষ এসসি/এসটি আইন অনুযায়ী পিটিশন দায়ের করেন রাজস্থানের এই আইনজীবী। বুধবার সেই পিটিশনের ওপর ভিত্তি করেই আদালত রাজস্থান পুলিসকে হার্দিক পান্ডিয়ার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করার নির্দেশ দেয়। 

আইপিএলে ১১ কোটি টাকাতে বিক্রি হওয়া এই তারকা ক্রিকেটারের প্রসঙ্গে আইনজীবী মেগওয়াল বলেন, "এমন মন্তব্য করে তিনি (হার্দিক পান্ডিয়া) একটি গুরুতর অপরাধ করেছেন। তার এই মন্তব্যে দেশের ভাবাবেগে আঘাত লেগেছে।" এমন 'সংবেদনহীন মন্তব্য' করার জন্য হার্দিকের যথাযোগ্য শাস্তির আবেদনও জানিয়েছেন 'রাষ্ট্রীয় ভীম সেনা'র সদস্য ডিআর মেগওয়াল। 

বিডিটাইমস৩৬৫/জামি

উপরে