আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০৯:৪৫

দলের সবচেয়ে মিত্যবায়ী বোলার মুস্তাফিজ

অনলাইন ডেস্ক
দলের সবচেয়ে মিত্যবায়ী বোলার মুস্তাফিজ

পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) নিজের দ্বিতীয় ম্যাচে কোনো উইকেট বাংলাদেশি কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান। আরেকটি হারের স্বাদ পেয়েছে তার দল লাহোর কালান্দার্স। 

দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শনিবারের দ্বিতীয় ম্যাচে লাহোরকে ৯ উইকেটে হারায় কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্স। ১২০ রানের লক্ষ্য ৬ ওভার বাকি থাকতেই পেরিয়ে যায় দলটি।

দুবাইয়ে অধিনায়ক ম্যাককালামের ৩ চার ও ২ ছক্কায় ১৮ বলে ৩০, নারিনের ৪ চার ও ২ ছক্কায় ১০ বলে ২৮ রানে ৩.৩ ওভারেই ৪৬ রানের উদ্বোধনী জুটি পায় লাহোর। পরে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে তারা। ডেলপোর্ট ১৫, সাদাফ ১৩, সোহেল অপরাজিত ২০ রানে একশ পার করে লাহোর। মোস্তাফিজ ৪ বলে এক রানে অপরাজিত থাকেন।

কোয়েটার হয়ে আর্চার ৩টি, নওয়াজ ২টি উইকেট নেন। নওয়াজ এদিন ৪ ওভারে এক মেডেনসহ মাত্র ৪ রান খরচ করেছেন ২ উইকেট নিতে।

রান তাড়া করতে নেমে ওয়াটসন ও আসাদ শফিক ৯২ রানের দ্রুতগতির জুটি এনে দেন কোয়েটাকে। ৫টি করে চার-ছক্কায় ৪২ বলে ৬৬ রানে ওয়াটসন ফিরলে ভাঙে জুটি। শফিক ৩৮ ও উমর আমিন ১৩ রানে অপরাজিত থেকে ম্যাচ জিতিয়ে ফেরেন।

ছোট সংগ্রহ, তার উপর নারিন ৪ ওভারে ৪০ রান খরচ করে বসেন এক উইকেট নিতে। মোস্তাফিজের তখন বেশিকিছু করারও ছিল না। ২ ওভার বল করার ডাক পেয়েছেন, তাতে ১০ রান দিয়ে নিজের ছন্দ ধরে রেখেছেন ভালমতোই। ক্যাচ না পড়লে একটি উইকেটও পেতে পারতেন তিনি।

ফিজ আগেরদিন ৪ ওভারের কোটা পূরণ করে ২২ রান দিয়ে নিয়েছিলেন ২ উইকেট। মুলতানের ওই ম্যাচে সর্বোচ্চ স্কোরার শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি কুমার সাঙ্গাকারা ও পাকিস্তানি ফখর জামানের উইকেট নিয়েছিলেন কাটার মাস্টার।

দুটি ওভার করার সুযোগ পান নিজের প্রথম ম্যাচে ২ উইকেট নেওয়া মুস্তাফিজ। তার ওপর চড়াও হতে পারেননি কোয়েটার ব্যাটসম্যানরা। প্রথম ওভারে বাঁহাতি পেসার দেন ৬ রান। পরেরটিতে ৪। দলের সবচেয়ে মিতব্যয়ী বোলার তিনিই।

উপরে