আপডেট : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৯:০৯

১৮ বছর পর ফের অন্ধকারে ডুবছে দেশের ক্রিকেট?

অনলাইন ডেস্ক
১৮ বছর পর ফের অন্ধকারে ডুবছে দেশের ক্রিকেট?

যারা অনেক বছর ধরে ক্রিকেটের খবর রাখেন তাদের নিশ্চয়ই মনে আছে বাংলাদেশের টেস্ট মর্যাদা পাওয়ার সময়টির কথা। কেমন অবস্থা ছিল তখন দলে? টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার পর একের পর এক ক্রিকেটার অভিষিক্ত হচ্ছিলেন, আবার দুদিন পর চিরদিনের জন্য বাদ পড়ে যাচ্ছিলেন। প্রতি ম্যাচেই নতুন নতুন ক্রিকেটারের অভিষেক ঘটত। দুই ম্যাচ খারাপ করলেই ক্যারিয়ার শেষ। সেই সময়ের ১৮ বছর পর আজ একই অবস্থা জাতীয় দলে।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঘরের মাঠে দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ৬ ক্রিকেটারের অভিষেক ঘটিয়ে দেওয়া হলো! তারা হলেন- জাকির হাসান, আফিফ হোসেন, আরিফুল হক, নাজমুল হাসান, আবু জায়েদ ও মাহাদি হাসান। প্রথম ম্যাচে চার জন দ্বিতীয় ম্যাচে দুজন। এর মধ্যে প্রথম ম্যাচে অভিষিক্ত দুজন দ্বিতীয় ম্যাচে বাদও পড়েছেন। তারা আদৌ আর জাতীয় দলে ফিরতে পারবেন কিনা তাতে যথেষ্ট সন্দেহ আছে।

এই সম্ভাবনাময় তরুণদের দলে নেওয়ার পক্ষে একমাত্র যুক্তি ছিল, সর্বশেষ বিপিএলে এদের সবাই দারুণ পারফর্ম করেছে। কথাটি পুরোপুরি সত্যি। আবার এই ৬ জনের অভিষেক ঘটনোর মধ্য দিয়ে আবারও প্রমাণ হলো যে, বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেট আর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মধ্যে আকাশ-পাতাল পার্থক্য। এমনকি বিপিএলের মানও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ধারেকাছে নেই।

দোষ কিন্তু এই ৬ তরুণের নয়। তাদের যেভাবে গড়ে তোলা হবে, তারা সেভাবেই গড়ে উঠবে। কিন্তু আমাদের ক্রিকেট কাঠামো এতটাই বাজে, আমাদের ক্রিকেটবোদ্ধারা এতটাই দুরদর্শী যে, এখন পর্যন্ত স্পোর্টিং উইকেটে খেলার সুযোগ পেল না ঘরোয়া লিগের ক্রিকেটাররা।

শুধু এই ৬ ক্রিকেটার নয়, ঘরোয়া ক্রিকেটের দুরাবস্থা প্রমাণিত হয় এনামুল হক বিজয়ের জাতীয় দলে প্রত্যাবর্তন আর বিদায়। ত্রিদেশীয় সিরিজে জাতীয় দলে ফিরে তিনি কিছুই করতে পারেননি। আবার ওই সিরিজ শেষে ঘরোয়া লিগে ফিরেই খেলছেন দুর্দান্ত সব ইনিংস। মানে কুয়োর ব্যাঙ কুয়োয় ফিরে এসেছে; তিন ম্যাচের জন্য সমুদ্রে গিয়ে অকুল পাথারে পড়েছিল। ঘরোয়া ক্রিকেট কাঠামোকে কুয়োর মধ্যে আবদ্ধ রাখার দায় কিন্তু ক্রিকেট বোর্ডের। এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি করে রাখ হয়েছে যে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সম্পর্কে কোনো ধারণা না নিয়েই তরুণ ক্রিকেটারদের জাতীয় দলে আসতে হয়।

এই দুষ্টচক্রের শেষ হবে কবে? কেনিয়া কিংবা স্কটল্যান্ডের মত ক্রিকেট থেকে নাম-নিশানা মুছে যাওয়ার পর?

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে