আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৯:২৪

খেলোয়াড় খুঁজে পাচ্ছে না বিসিবি!

অনলাইন ডেস্ক
খেলোয়াড় খুঁজে পাচ্ছে না বিসিবি!

মিরপুর টেস্ট মাত্র আড়াই দিনেই হেরেছে বাংলাদেশ। পাঁচ দিন পর্যন্ত গড়ালে সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) এই প্রতিবেদন লেখার সময় (দুপুর) সাদা পোশাকেই মাঠে থাকার কথা ছিল টাইগারদের। কিন্তু এখন কিনা টি-টুয়েন্টি নিয়ে ভাবতে হচ্ছে বাংলাদেশকে। বৃহস্পতিবারই যে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচ।

আর সেই ভাবনায় সংবাদমাধ্যম থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষের আলোচনাতেও একটা বিষয় উঠে আসছে। টি-টুয়েন্টিতে পাঁচ নতুন মুখ কেন? এই প্রসঙ্গে সোমবার মধ্যাহ্ন আলোচনায় মোহম্মদ রফিক বললেন, খেলোয়াড় খুঁজে না পেয়েই পাঁচ নতুন মুখ নেওয়া হয়েছে।

পাঁচজন নতুন মুখ কেন? এই প্রশ্নে সাবেক স্পিনার রফিক বলেন, ‘এই বিষয়টা তেমন কিছু নয়। পাঁচজন নতুন মুখ নেওয়ার উদ্দেশ্য এই বাংলাদেশ টিম এখন খেলোয়াড় খুঁজে পাচ্ছে না। আমার কথা হচ্ছে এই যে পাঁচজন, দুইজন একজন করে নিচ্ছেন, নেওয়ার পর দেখা যায় একটা সিরিজ খেলার পর তাদের বাদ দিয়ে দিচ্ছে। এভাবে বাদ দেওয়া মানে খেলোয়াড়টিকে নষ্ট করে দেওয়া। হিসেব করে দেখেন প্রতি বছর কতোজন খেলোয়াড়ের অভিষেক হচ্ছে। এবং সেই খেলোয়াড়রা কোথায়?’

দল নিয়ে দিশেহারা হয়েই যে এমন সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন নির্বাচকরা সেটিই আরেকবার উঠে আসে রফিকের কথায়, ‘দিশেহারা না হলে পাঁচজন খেলোয়াড়দের তো নতুন নেওয়া হয় না। টেস্ট সিরিজ থেকে শুরু করে দেখুন, কোন দেশ আছে যে এতো বেশি চেঞ্জ হয়। তাহলে এই চেঞ্জ হওয়ার উদ্দেশ্য হলো খেলোয়াড়ের উপর আপনার বিশ্বাস নেই। দেখা গেল এই পাঁচজন নিয়েছেন। আল্লাহ না করুক, ওরা খারাপ খেললে তখন কি করবেন?’

রফিক নিজের রাখা প্রশ্নেই উদ্বিগ্ন হন। পরে রাখলেন একটা দাবি। দীর্ঘ মেয়াদে পরিকল্পনা হোক ক্রিকেটারদের নিয়ে, ‘আমি বাংলাদেশের ম্যানেজমেন্টকে একটাই কথা বলবো। সামনে বিশ্বকাপ আছে। এখন থেকেই একটি দল গুছিয়ে প্র্যাকটিস করানো দরকার। বেশি বেশি ম্যাচ খেলানো দরকার। হারুক। অসুবিধা নেই। কিন্তু এখন থেকেই পরের দলটা তৈরি করতে হবে। সেই চিন্তা করে পুরো টিমই চেঞ্জ করেন। কিন্তু প্ল্যানিং থাকতে হবে। না হলে দেখা যাবে বিশ্বকাপেও নতুন মুখ থাকবে। কারণ, আপনি খেলোয়াড় খুঁজে পাবেন না।’

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে