আপডেট : ২০ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৪:২৫

এখন কেমন লাগছে 'গুরু'?

অনলাইন ডেস্ক
এখন কেমন লাগছে 'গুরু'?

ঢাকায় পা রাখার পর কেবল মাশরাফির সঙ্গেই কয়েক সেকেন্ডের জন্য মিরপুরে হাত মিলিয়েছিলেন। টিম হোটেলে বাকিদের সঙ্গে দেখা হলেও নাকি তিনি মুখ ঘুরিয়ে নিতেন! বারবার যেন বোঝাতে চাইছেন- আমি আর এখন তোমাদের কেউ নই। চেনা সাংবাদিকদের দেখেও সংক্ষিপ্ত উত্তর ছিল তার- আমার আবেগ-টাবেগ নেই ...।

যিনি কি-না সাড়ে তিন বছর টাইগারদের সংসারের একজন ছিলেন, তার এমন ভোল পাল্টে যাওয়াটা অবাক করার মতো ছিল। তবে কথার পিঠে কথা নয়, টাইগাররা চেয়েছিল গুরুকুলের সাবেক শিক্ষককে তার সামনেই মাঠে নেমে জবাবটা দিতে, যতটা চাওয়া ছিল এ যেন তার চেয়েও বেশি। শুধু হারই নয়, লংকানদের নাস্তানাবুদ করে ছাড়া। এতদিন বাঘের ডেরায় থেকে তাদের আঁচ টের পেয়েছিলেন হাথুরু, এদিন টের পেলেন বাঘের আঘাতে ঘায়েল হওয়ার রক্তক্ষরণের ব্যথাও- কেমন লাগছে 'গুরু'? ফেসবুকের পোস্ট থেকে মিরপুরের গ্যালারি সবখানেই যেন ছিল প্রতিশোধ নেওয়ার এই তৃপ্তিটা।

গেল অক্টোবরে একটি মেইল পাঠিয়ে টাইগারদের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদের সিদ্ধান্তটি জানিয়েছিলেন লংকান এই কোচ। তার হঠাৎ ওই সিদ্ধান্তে একটা ঝাটকা লেগেছিল বটে। বিসিবিপ্রধান নাজমুল হাসান পাপনের বাড়িতে বসেছিলেন দলের পাঁচ সিনিয়র- মাশরাফি, সাকিব, তামিম, মুশফিক আর মাহমুদুল্লাহ। কেমন কোচ চাই তোমাদের? বিসিবিপ্রধানের জিজ্ঞাসায় পাঁচজনের প্রত্যেকেই জানিয়েছিলেন, তাড়াহুড়ার কিছু নেই। যতদিন যোগ্য কোচ খুঁজে পাওয়া না যায়, ততদিন আমরাই সামলাব। বাড়তি দায়িত্ব নিয়েছিলেন তাদের প্রত্যেকে। বিসিবিপ্রধান খুশি হয়ে ঘোষণাও দিয়েছিলেন- মাশরাফি-সাকিবই কোচের বাড়তি দায়িত্ব পালন করবে।

তারপর থেকেই দলের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন আর কোর্টনি ওয়ালশ, হ্যালসলসহ কোচিং স্টাফের বাকিদের নিয়ে এই ত্রিদেশীয় সিরিজের ছক কষে টাইগাররা। নিজেদের ওপর প্রচণ্ড আত্মবিশ্বাস আর জান দিয়ে লড়ে যাওয়ার সংকল্প নিয়েছিলেন প্রত্যেকে। সে কারণেই বদলে যাওয়া একটি নতুন চেহারার দল দেখেছে এবার মিরপুর। লোকে এই সিরিজে হাথুরুকেও একটি প্রতিপক্ষ হিসেবে ধরে নিয়েছে। মিডিয়াও তাই।

তবে মাশরাফি, তামিমরা বারবারই বলে আসছেন, এ লড়াই কেবল একজনের বিপক্ষে নয়, লড়াইটা লংকানদের বিপক্ষে। গতকালও সে কথাই বললেন সাকিব আল হাসান। ম্যাচ শেষে প্রশ্নটা ছিল- এই ম্যাচে হাথুরুর ব্যাপারটি আপনাদের মাথায় ছিল কি-না? উত্তরে সাকিব 'আমাদের মাথায় ওসব ছিল না। এটা শুধু কথার কথা নয়, আমরা মন থেকেও বিশ্বাস করি, আপনারাও সেটা করবেন আশা করি।' সাকিব বুঝিয়ে দিতে চাইলেন, হাথুরু-পর্বের ইতি ঘটে গেছে। পুরনো কাসুন্দি নিয়ে আর না ঘাঁটাই ভালো!

বিডিটাইমস৩৬৫ডটকম/জিএম

উপরে